নড়াইলে আপত্তিকর ছবি ভাইরাল হওয়ায় কলেজ ছাত্রীর আত্মহত্যা

0
51

নড়াইল প্রতিনিধি : নড়াইলের লোহাগড়ায় আপত্তিকর ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়ার অপমানে বাড়ির এসে সিলিং ফ্যানের সঙ্গে ওড়না পেঁচিয়ে এক ছাত্রী আত্মহত্যা করেছে। গত শুক্রবার (১৫ এপ্রিল) বিকালে উপজেলার মাইগ্রামে এ ঘটনা ঘটে। সে খুলনার বয়রা সরকারি মহিলা কলেজ থেকে এ বছর জিপিএ ৫ পেয়ে এইচএসসি পাশ করেছে। সংবাদ পেয়ে লোহাগড়া থানার পুলিশ রাতেই ওই ছাত্রীর লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।
ওই ছাত্রীর চাচাতো ভাই এসএম আল মামুন জানান, উপজেলার মল্লিকপুর ইউনিয়নের পাঁচুড়িয়া গ্রামের শহিদুল থান্দারের ছেলে তাশরিফ থান্দার নামে নড়াইল ভিক্টোরিয়া কলেজের আরেক ছাত্রের সঙ্গে মোবাইলের মাধ্যমে ওই ছাত্রীর প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এক পর্যায়ে উভয়ের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক আপত্তিকর পর্যায়ে চলে যায়। তাশরিফ গোপনে ওই ছাত্রীর আপত্তিকর ছবি মোবাইলে ধারণ করে অনৈতিক মেলামেশার প্রস্তাব দেয়। এতে ওই ছাত্রী রাজী না হওয়ায় তাশরিফ তার কাছে থাকা আপত্তিকর ছবি ওই ছাত্রী এবং তার বান্ধবী খুলনার চন্দনী মহল এলাকার কুলসুমের মোবাইলে পাঠিয়ে দেয়। গত কয়েকদিন পূর্বে ওই ছবি বান্ধবী কুলসুম ছাত্রীর ভাই দাউদ শেখের মোবাইলে পাঠিয়ে দেয়। পরে ছবিটি পরিবার ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে এবং গ্রামবাসীদের মধ্যে জানাজানি হয়ে যায়। এ ঘটনায় ওই ছাত্রী শুক্রবার বিকালে পরিবারের সদস্যদের অজান্তে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করে।
লোহাগড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শেখ আবু হেনা মিলন বলেন, আত্মহত্যার ঘটনায় অপমৃত্যু মামলা হবে। লাশ ময়না তদন্তের জন্য নড়াইল মর্গে পাঠানো হয়েছে। রিপোর্ট পেলে পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।#