নড়াইলে পাগলা কুকুরের কামড়ে শিশুসহ আহত ২০

0
775

নড়াইল প্রতিনিধি: নড়াইলে সদর উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় পাগলা কুকুরের কামড়ে শিশুসহ ২০জন আহত হয়েছে। আহতদেরকে নড়াইল সদর হাসপাতাল ও খুলনা মেডিকেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহতদের সূত্রে জানা গেছে, রবিবার (৩০ এপ্রিল) সন্ধ্যা থেকে সোমবার (১ মে) সকাল পর্যন্ত নড়াইল সদর উপজেলার ভান্ডারীপাড়া, বিলডুমুরতলা, সরসপুর, বাগডাঙ্গা, বরাশুলাসহ বিভিন্ন এলাকায় পাগলা কুকুরের কামড়ে শিশুসহ অন্তত ২০ জন আহত হয়েছে। আহত অবস্থায় সরশপুর গ্রামের সেন্টু বিশ্বাসের মেয়ে প্রিয়তি বিশ্বাস (৫), দলজিৎপুর গ্রামের হুমায়ুন কবীরের ছেলে রায়হান (৬), ডুমুরতলা গ্রামরে আতিকুর রহমানের মেয়ে সাদিয়া (৪), আ. জলিলের স্ত্রী শুকুরোন বেগম (৫০), বরাশুলা গ্রামের বনি (২৭), রাব্বী (১৬), রেজাউল হোসেনের স্ত্রী পান্না (৩৫), হবখালী গ্রামের সোহেল বিশ্বাসের মেয়ে রুকাইয়া (৩), বাগডাঙ্গা গ্রামের ফিরোজ মোল্যার মেয়ে জান্নাতী (৬), একই গ্রামের টুটুলের ছেলে হাসিব (৭), জাহাঙ্গীর শেখের ছেলে রনি (১২), ভান্ডারীপাড়া গ্রামের তাইজেল মোল্যার মেয়ে সুমাইয়া (৯), লাহুড়িয়ার হাসান মোল্যার ছেলে সোহাগসহ (১৪) ২০ জনকে নড়াইল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহতদের স্বজনরা অভিযোগ করেন, নড়াইল সদর হাসপাতাল থেকে কুকুরের কামড়ের ভ্যাকসিন না দেওয়ায় বাইরে থেকে কিনে দিতে হচ্ছে। সদর হাসপাতালের জরুরী বিভাগের চিকিৎসক আলোক কুমার বাগচী জানান, রবিবার রাত থেকে সোমবার সকাল পর্যন্তু কুকুরের কামড়ে আহত ২০ জনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহতদের মধ্যে হাসিবকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে। সদর হাসপাতালে ৮/৯ মাস ধরে কুকুরের কামড়ের ভ্যাকসিন না থাকায় রোগীদের বাইরে থেকে কিনতে হচ্ছে ভ্যাকসিন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here