নড়াইলে মানবপাচার মামলার বাদীকে হত্যার হুমকি

0
222

নিজেস্ব প্রতিবেদক, নড়াইল : নড়াইলের কালিয়ায় বিয়ের নামে নাটক সাজিয়ে ভারতের যৌনপল্লীতে এক নারীকে বিক্রির অভিযোগে দায়েরকৃত মানবপাচার মামলার বাদীনি তানজিলা বেগমকে হত্যার হুমকি দিচ্ছে গ্রেফতারকৃত প্রধান আসামী ফোরকান শেখের স্ত্রীসহ তার পরিবারের সদস্যরা। বাদিনী মামলা করে জীবন বাঁচাতে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন বলে খবর পাওয়া গেছে। এ বিষয় তানজিলা বেগম মঙ্গলবার রাতে কালিয়া থানায় একটি জিডি করেন।
জিডির বিবরণ পুলিশ ও স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, উপজেলার পেড়লী ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ড়ের সদস্য ও পেড়লী গ্রামের মৃত আব্দুল জলিল শেখের ছেলে ফোরকান শেখ ২০০৯ সালের ১০ জানুয়ারী সাদা কাগজে স্বাক্ষর নিয়ে শীতলবাটি গ্রামের মৃত খোকা শেখের মেয়ে তানজিলা বেগমকে বিয়ের নাটক তৈরী করে। এর কয়েক দিন পর বেড়াতে নেয়ার নাম করে তাকে ভারতে নিয়ে যায়। ভারতের বোম্বে শহরের গ্রন্ডরোডের যৌন পল্লীতে মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে তাকে বিক্রি করে দেয় বলে তার অভিযোগ। দীর্ঘ ৮ বছর পর সম্প্রতি তানজিলা কৌশলে সেখান থেকে পালিয়ে বাংলাদেশে ফিরে এসে ১৪ অক্টোবর কালিয়া থানায় মামলা করে। তখন পুলিশ ওই ইউপি সদস্য ফোরকান শেখকে গ্রেফতার করে আদালতে প্রেরণ করে। মামলা দায়ের হয়ার ঘটনায় আসামিরা ক্ষিপ্ত হয়। ১৬ অক্টোবর সন্ধ্যায় ফোরকান শেখের স্ত্রী আনিরা বেগমের নেতৃত্বে তার স্বজনরা তার বাড়িতে গিয়ে তানজিলা বেগমকে মামলা তুলে নিয়ে ফোরকানকে মুক্ত করার জন্য চাপ দেয়। তাকে জেল থেকে মুক্ত না করলে তানজিলা বেগমকে হত্যা করার হুমকি দেয়।
কালিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ শেখ শমসের আলী এ প্রসঙ্গে বলেন, ‘ওই মামলার বাদী তানজিলা আসামী ফোরকানের স্ত্রী আনিরাসহ চার জনের নাম উল্লেখ করে থানায় জিডি করেন। প্রাথমিক তদন্তে ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেছে। তানজিলা ও তার পরিবারের ওপর পুলিশের নিরাপত্তার ও নজরদারি জোরদার করা হয়েছে’।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here