নড়াইলে ৫ লাখ টাকা না দেয়ায় শিশুকে হত্যা

0
36

নিজস্ব প্রতিবেদক : নড়াইলে অপহরণকারীদের দাবিকৃত টাকা না দেয়ায় শিশু আরাফাতকে (১১) হত্যা করা হয়েছে। মঙ্গলবার (১৫ মার্চ) আরাফাতের লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহত শিশু বোড়ামারা গ্রামের ওবায়দুর শিকদারের ছেলে সে পেড়লী দাখিল মাদরাসার ৫ম শ্রেণীর ছাত্র।

শনিবার (১২ মার্চ) নড়াইল সদর উপজেলার মাইজপাড়া ইউনিয়নের বোড়ামারা গ্রামে থেকে নিখোঁজ হয় শিশু আরাফাত। পরিবারের লোকজন অনেক খোজাখুজির পরও সন্ধান না পাওয়ায় ঐ দিনেই সদর থানায় সাধারণ ডায়েরি করা হয়।

যে মোবাইল থেকে অপহারণকারীরা পাঁচ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করেছিলো। পুলিশ সেই নাম্বার ট্রাকিং করে সোমবার রাতে অপহারণকারীদের সন্ধান পায়। তারপর তাদের দুইজনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে তাদের স্বীকারোক্তি মতে পুলিশ বোড়ামারা গ্রামের শিকদার পাড়ার বাঁশবাগান থেকে শিশু আরাফতের মরদেহ উদ্ধার করে।

এ বিষয়ে শিশুর বাবা ওবায়দুর শিকদার বলেন, অপহারণকারীরা পাঁচ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করেছিলো দাবিকৃত টাকা না দেয়ায় আমার শিশু পুত্রকে হত্যা করা হয়েছে।

পুলিশ ব্যুরো অব ইনভোস্টিগেশন (পিবিআই)ইন্সপেক্টর শামীম জানান,আসামিদের দেয়া তথ্য মতে শিশুর মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

এ বিষয়ে নড়াইল সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শওকত কবীর বলেন, সদর থানা পুলিশের সহযোগিতায় পুলিশ ব্যুরো অব ইনভোস্টিগেশন (পিবিআই )উদ্ধার কাজ পরিচালনা করে। এই ঘটনায় পুলিশ দুইজনকে গ্রেফতার করেছে।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- বোড়ামারা গ্রামের তহিদ মোল্যার ছেলে নাবিল মোল্যা (১৬) একই গ্রামের সাহিদুল মোল্যার ছেলে মিলন মোল্যা (২১)। এছাড়া জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নাবিল মোল্যার বাবা তহিদ মোল্যা ও মা ফাতেমাকে আটক রাখা হয়েছে। মর্মান্তিক এ ঘটনায় এলাকায় শোখের ছায়া নেমে এসেছে।