নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশনকে অ্যাম্বুলেন্স উপহার দিল ‘রংপুর রাইডার্স’

0
412

নিজস্ব প্রতিবেদক : ‘রংপুর রাইডার্স’ নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশনকে একটি ব্র্যান্ড নিউ অ্যাম্বুলেন্স উপহার দিয়েছে। মঙ্গলবার (১৯ ডিসেম্বর) ঢাকায় বসুন্ধারা গ্রুপের নিটক থেকে নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে তারিকুল ইসলাম অনিক ও সৈয়দ জাফরুল ইসলাম অপু এ অ্যাম্বুলেন্সটি গ্রহণ করেন। বুধবার (২০ ডিসেম্বর) রাত ৮টায় বাংলাদেশ ওয়ানডে দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশনের কার্যালয়ে এক সভায় অংশগ্রহণ করবেন।
এ্যম্বুলেন্সটি মঙ্গলবার পায় মধ্য রাতে নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশনের অফিসে পৌঁছায়। বর্তমান নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশনের ব্যবস্থাপনায় সংরক্ষিত রয়েছে। এখন থেকে ফাউন্ডেশনের ব্যবস্থাপনায় ও নিয়মানুযায়ি নড়াইলের সুবিধাবঞ্চিত অসহায় হতদরিদ্র রোগী সরাসরি এই অ্যাম্বুলেন্স ব্যবহার করতে পারবেন।
উল্লেখ্য, এ বছরের সেপ্টেম্বরে নড়াইলের সার্বিক উন্নয়নের লক্ষ্যে বাংলাদেশ ওয়ানডে দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজার নেতৃত্বে ‘নড়াইল এক্সপ্রেস’ নামে একটি ফাউন্ডেশন গঠন করা হয়। বাংলাদেশের ক্রিকেটে মাশরাফি ‘নড়াইল এক্সপ্রেস’ ডাকনামেও পরিচিত। নড়াইলের জনগণের অংশগ্রহণে এলাকার সার্বিক উন্নয়নে কাজ করার লক্ষ্যেই পথচলা শুরু হয়েছে নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশনের। এবারের বিপিএল শুরুর আগে রংপুর রাইডার্স দলের অধিনায়ক মাশরাফি দলের মালিক পক্ষের কাছে নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশনের জন্য একটি অ্যাম্বুলেন্স চেয়েছিলেন। মাশরাফির নেতৃত্বে রংপুর বিপিএল শিরোপা ঘরে তোলার পর তার চাওয়া পূরণে খুব একটা সময় নেয়নি রাইডার্সদের মালিক পক্ষ বসুন্ধরা গ্রুপ। ইতিমধ্যে অ্যাম্বুলেন্সটি তুলে দেওয়া হয়েছে নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশনের হাতে। অ্যাম্বুলেন্স পাওয়ার ব্যাপারটি নিশ্চিত করেছেন নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশনের নেতৃবৃন্দ।
এ ব্যাপারে মাশরাফি বলেন, ‘বিপিএলে’র পঞ্চম আসর শুরুর আগেই রংপুর রাইডার্সের মালিক সাফওয়ান ভাই ও সিইও ইশতিয়াক ভাইয়ের কাছে আমি নড়াইলবাসির জন্য একটা অ্যাম্বুলেন্স চেয়েছিলাম। ফাইনাল খেলা শেষ হওয়ার পাঁচ দিনের মাথায় রংপুর রাইডার্স আমার নড়াইলবাসির জন্য সে কথাটি রেখেছে। অনেক সুবিধাবঞ্চিত অসহায় হতদরিদ্র রোগী সরাসরি এখন এই অ্যাম্বুলেন্স ব্যবহার করতে পারবেন।’
নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশন গঠনের কয়েক মাসের মধ্যেই নড়াইলে বেশ কিছু উল্লেখযোগ্য কাজ করেছে ফাউন্ডেশন। শহরের বেশ কয়েকটি স্থানে জনসাধারণের জন্য সুপেয় পানি খাওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে। শহরের চৌরাস্তায় ফ্রি ওয়াইফাই সেবা চালু করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here