পরীমণির ‘আপন মানুষ’ নিয়ে একান্ত আলাপ

0
325

নিজস্ব প্রতিবেদক : শুক্রবার দেশব্যাপী মুক্তি পেতে যাচ্ছে পরীমণির ‘আপন মানুষ’ ছবিটি। এটি তার দ্বাদশ ছবি। দর্শকরাই নাকি তার আপন মানুষ— এমনটাই জানালেন তিনি। এতে তার বিপরীতে রয়েছেন বাপ্পী।

এ ছবি ও অন্যান্য প্রসঙ্গ নিয়ে আজ রইল তার সাক্ষাৎকার—

কেমন আছেন?

বরাবরের মতোই বলছি ভালো আছি। আসলে খারাপ থাকলেও এ শব্দটাই উচ্চারণ করি। হা. হা.. হা… না, সত্যিই ভালো আছি। তা ছাড়া শুক্রবার মুক্তি পাচ্ছে আমার ‘আপন মানুষ’ ছবিটি। এ কারণে কিছুটা উচ্ছ্বসিতও বটে।

এ ছবি নিয়ে প্রত্যাশা কেমন?

সত্যি কথা বলতে কি, এ ছবি নিয়ে প্রত্যাশা একটু ভিন্নমাত্রায়। তা হলে একটু পেছনে যেতে হবে। পরিচালক শাহ আলম মণ্ডল ভাইয়ের হাত দিয়েই চলচ্চিত্রে এসেছিলাম আমি। এ ছবিটিও তার। এর কাহিনী শুনে ‘আপন মানুষ’ নামটি আমিই দিয়েছিলাম। অনেকটা অধিকার নিয়ে টুকটাক কিছু বিন্যাসও করেছিলাম। অন্যদিকে বিপরীতে রয়েছে বাপ্পী। সব মিলিয়ে ভালো ফল আশা করছি। বাকিটা দর্শকরাই বিচার করবেন।

বাপ্পীর বিপরীতে মুক্তি পেতে যাওয়া এটি আপনার তৃতীয় ছবি…

জ্বি.. এর আগে দুটি ছবি মুক্তি পেয়েছে। এতটুকু আশ্বস্ত করতে পারি আগের দুইটির কাহিনী থেকে আপন মানুষের কাহিনী সম্পূর্ণ ভিন্ন। পুরোপুরি মৌলিক একটি গল্পে অভিনয় করেছি। এ ছাড়া পরিচালক শাহ আলম ভাইও তার মুন্সিয়ানা দেখিয়েছেন আমার ও বাপ্পীর রসায়নকে ফুটিয়ে তুলতে।

বাস্তবের আপন মানুষ পেয়েছেন না অপেক্ষায় আছেন?

হা. হা.. হা…। দর্শকরাইতো আমার আপন মানুষ। পরিবারের পরে তারাই অতি আপন। আপাতত তারাই অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ।

দুই বছর পারি দিলেন রুপালি জগতে, প্রত্যাশা ও প্রাপ্তির পার্থক্য এবং মূল্যায়ন কতটুকু।

দেখুন, প্রত্যাশা থাকাটাই স্বাভাবিক। ঠিক তেমনি প্রত্যাশাকে ফলো করে প্রাপ্তি-অপ্রাপ্তিও উঠে আসবে। এ পর্যন্ত যা চেয়েছি তার অধিকাংশই পেয়েছি। তবে একটি কথা না বললেই নয়, গিয়াস উদ্দিন সেলিমের ‘স্বপ্নজাল’ ছবিতে অভিনয় করার পর নিজের অভিনয় নিয়ে নতুন করে ভাবতে শুরু করেছি। মনে হচ্ছে, সত্যিই কি এটা ছিল অভিনয়?

ঠিক বুঝলাম না…

বলতে চাচ্ছি আগে যেসব ছবিতে অভিনয় করেছি সেখানে কেমন যেন ফ্যাসিনেশন ঢেলে দিতাম। আর স্বপ্নজালে কেমন যেন অভিনয়ের মায়াচ্ছন্নে জড়িয়ে গেলাম। আবারও বলছি, তার মানে এই নয় আগের ছবিগুলোতে অভিনয় করিনি। আসলে এখন অভিনয়টাকে আরও বেশি আপন করে নিয়েছি। পুরোপুরি নিংড়ে অভিনয়কে বের করতে পারছি। তাই ছবি বাছাইয়ের ক্ষেত্রেও খুব চিন্তা-ভাবনা করে সিদ্ধান্ত নিচ্ছি। বছরে ৮-১০টি ছবি না করে ৩-৪টা ছবিতে ফোকাসের সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

বর্তমান ব্যস্ততা কি নিয়ে?

বর্তমানে বেশ কয়েকটি ছবি সেন্সরবোর্ড পাড়ি দিয়েছে আমার। কয়েকটি ডাবিং চলছে; আর কয়েকটির শুটিং শেষ পর্যায়ে। শিগগিরই একটি কনজ্যুমার প্রোডাক্টের টিভিসি করতে যাচ্ছি। এ ছাড়া বেশ কয়েকটি বিগ বাজেটের ছবির কথা চলছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here