পাইকগাছায় চিংড়ি ঘেরের বাঁধ কেটে দেওয়ায় ক্ষয়-ক্ষতির অভিযোগ

0
344

পাইকগাছা প্রতিনিধি : পাইকগাছায় আদালতের মামলায় ইউপি চেয়ারম্যানের নোটিশ পেয়ে প্রতিপক্ষরা ক্ষিপ্ত হয়ে গ্রামপুলিশের দফাদারের চিংড়ি ঘেরের বাঁধ-বন্দি কেটে ক্ষয়-ক্ষতি করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ নিয়ে দফাদার আনোয়ার হোসেন নিরুপায় হয়ে সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার গদাইপুরের বাইশারাদ মৌজায়। এ ইউনিয়নের চরমলই গ্রামের মৃত মঙ্গল মোড়লের ছেলে দফাদার আনোয়ার হোসেন জানান বাইশারাবাদ মৌজায় ১নং খতিয়ানে ২০৭ দাগে ও হাল ১৮২ খতিয়ানে ১ ও ১৮৬ দাগে তার পিতার নামে ১.৩০ একর বন্দোবস্তকৃত সম্পত্তি দীর্ঘদিন তারা ভোগ দখলে রয়েছে। বর্তমান জরিপে এ সম্পত্তি তাদের নামে রেকর্ড সহ কর-খাজনাও পরিশোধ রয়েছে। অভিযোগ উঠেছে, গত ২ বছর পুরাইকাটির মোঃ কোনাই মোড়ল গংরা এ সম্পত্তিতে চিংড়ি ঘের করলেও একাধিকবার তাগিদ দেয়া স্বত্ত্বেও এ পর্যন্ত তাদের প্রাপ্য ৪০ হাজার হারীর টাকাও পরিশোধ করেননি। শেষ পর্যন্ত নিরুপায় হয়ে গত বছরের ১৫ ডিসেম্বর তাদের সম্পত্তি আলাদা করে পৃথক চিংড়ি ঘের করে মাছের পোনা মজুদ করেন। এদিকে জমির অনাদায়ী হারীর টাকা আদায়ের জন্য বিগত ১৪/১২/২০১৭ তারিখে ক্ষতিগ্রস্থ আনোয়ার হোসেন পাইকগাছা সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মোঃ কোনাই মোড়ল, ইকবাল মোড়ল, ইউনুছ মোড়ল ও আনিস শেখের বিরুদ্ধে সি.আর ১৩৩/১৭ নং মামলা দায়ের করলে আদালত গদাইপুর ইউপি চেয়ারম্যান গাজী জুনায়েদুর রহমানের কাছে মামলাটি তদন্তের নির্দেশ দেন। দফাদার আনোয়ার অভিযোগ করেছেন, আদালতের নির্দেশে ইউপি চেয়ারম্যান নোটিশ প্রদান করলে ক্ষিপ্ত হয়ে মঙ্গলবার সকালে কোনাই গংরা দলবল বেঁধে তার ঘেরে বাঁধ-বন্দি কেটে তছনছ করে ব্যাপক ক্ষয়-ক্ষতি করেছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here