পাটকেলঘাটার মিনি উপশহরে উন্নয়নের ছোয়া

0
259

মো. রিপন হোসাইন,পাটকেলঘাটা : মহাকবি মাইকেল মধুসূদন দত্তের স্বৃতি বিজড়িত কপোতাক্ষের বুক চিরে গড়ে উঠা দক্ষিণ-পশ্চিমঞ্চালের প্রাচীনতম সাতক্ষীরা জেলা প্রধান বানিজ্য কেন্দ্র পাটকেলঘাটা থানাঞ্চল যেটা সদর সরুলিয়া ইউনিয়ন অবস্থিত। সময়ের সাথে কালের পরিক্রমায় পরিবর্তন হয়ে আসছে ঐতিহ্যবাহী পাটকেলঘাটা তথা সরুলিয়া সদর ইউনিয়ন যা মিনি উপশহর হিসেবে খ্যাত। তথ্য অনুসন্ধানে দেখা দেখা গেছে, তালা সদর হতে ১৫ কি.মি. ও জেলা হতে ১৬ কি.মি.অবস্থিত ৫টি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত পাটকেলঘাটা থানা। কপোতাক্ষের তীরবর্তীতে নৌযানের মাধ্যমে সোনালী আশ পাটের আনা নেওয়া থেকেই পাটের ঘাট, অতঃপর পাটকেলঘাটায় পরিণত হয়। উন্নয়নে ধারাবাহিকতায় ‘গনতন্ত্র উন্নয়ন শেখ হাসিনার মূলমন্ত্র’ উন্নয়নে মহাসড়কে এগিয়ে চলছে দূর্বার গতিতে ম্লোগানে । সাথে সাথে বর্তমান জননেত্রী শেখ হাসিনা সরকার স্থানীয় সরকারকে শক্তিশালী করা লক্ষে অবকাঠমোগত উন্নয়ন আধুনিকায়নে অংশ হিসেবে ঐতিহ্যবাহী পাটকেলঘাটা সদর সরুলিয়া ইউনিয়নে উন্নয়নে এগিয়ে যাচ্ছে। এই ইউনিয়নে চেয়ারম্যান মোঃ মতিয়ার রহমান দায়িত্ব গ্রহনের পর থেকে উন্নয়নে ইউনিয়নে প্রংশনীয় দাবিদার রেখেছেন। ইউনিয়নে ২৭টি গ্রামে অবকাঠমো উন্নয়ন কাজ এগিয়ে যাচ্ছে। তিনি দায়িত্ব পর থেকে শুরু হয় ইউনিয়নে উন্নয়ন পথে শুরু হওয়া পরিকল্পনা। উন্নয়নে প্রথমে দিকে কপোতাক্ষ নদের পাশ দিয়ে ২লক্ষ তালবীজ রোপনে মধ্যে নিয়ে এলাকার রাস্তাঘাট,কালভাট নির্মান,জলাবদ্ধতা নিরসনে জন্য ড্রেন নির্মান পরিকল্পনা, পাটকেলঘাট দীর্ঘদিনে বাজারের যানজট নিরসনে জন্য ফুটপাত কাচা বাজারকে কপোতাক্ষ তীরে একটি স্থান্তার করা ও পাটকেলঘাটাসহ ইউনিয়ন বাসীর জন্য নদের পাশ দিয়ে একটি বাইপাস সড়ক নির্মানে কাজ এতো মধ্যে সমাপ্ত পথে। মশাডাঙ্গা খালের উপর ৩০ লক্ষ টাকা ব্যায়ে ব্রীজ নির্মানে কাজ এতো মধ্যে শুরু হয়েছে। বিভিন্ন ওয়ার্ডে ইটের সোলিং,চাউল বাজারকে ইটের সোলিংসহ আগামীতে ইউনিয়নে ১২টি ক্যারপেটিং রাস্তার কাজ শুরু হবে বলে পরিষদ সূত্রে জানা যায়। এছাড়া তালা উপজেলা ভূমি অফিস পাটকেলঘাটা অবস্থিত যেটা (এ্যাসিলান্ট) অফিসকে সৌন্দর্য্য বদ্ধনের জন্য প্রাচীর নির্মান ,সর্বশেষ সরুলিয়া ইউনিয়নকে ভিক্ষুকমুক্ত করার ঘোষনা করেন। এবং ভিক্ষুদের পূর্নবাসন করার জন্য একটি ভিক্ষুক পূর্নাবাসন বাজার গড়ে তুলেছেন। চেয়ারম্যান মোঃ মতিয়ার রহমান প্রায় ১ বছরের ইউনিয়নে উন্নয়নে এগিয়ে সরুলিয়া ইউনিয়ন বাসী । পাটকেলঘাটা বাজার জলাবদ্ধতা করল থেকে রক্ষার করার জন্য প্রায় ১ কোটি টাকা ব্যায়ে ড্রেনের কাজ খুব দুরুত্ব শুরু হবে। ইউনিয়ননে উন্নয়নে কথা জানতে চাইলে যুগিপুকুরিয়া গ্রামে তকিমুদ্দিন বলেন, চেয়ারম্যান মতিয়ার রহমান যেভাবে রাস্তাঘাট,কালভাট,ইটের সোলিংসহ যেভাবে উন্নয়ন কাজ চলছে তাতে করে আমরা আশাকরি এই উন্নয়ন অব্যাহত থাকবে। এছাড়াও নানমূখী উন্নয়নে কোটি টাকারও বেশি উন্নয়ন কর্মযজ্ঞ হাতে নিয়েছেন ।যেটা কিছুটা সফলতা সাথে কাজ শুরু করেছেন । ইউনিয়ন পরিষদের নানামুখী সেবা প্রদানের মাধামে জন্ম-মৃত্যু নিবন্ধন,পাবলিক পরীক্ষার ফলাফল,অনলাইন বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি,অনলাইন পর্চা আবেদন,সরকারী ফরম পূরন,মোবাইল ব্যাংকিং সেবা,রঙ্গিন ছবি তোলা,অনলাইন চাকুরী তথ্য ও আবেদন,অনলাইনে বিদ্যুৎবিল অন্যানো বিল পরিশোধ,ই-মেইল,ইন্টারনেট,ভিডিও কলিং,কৃষি.স্বাস্থ্য,শিক্ষাসহ যাবতীয় সেবা দিয়ে যাচ্ছে।
চেয়ারম্যান মতিয়ার রহমান ১৯৫২ সালে পাটকেলঘাটার সরুলিয়া ইউনিয়নে জুসখোলা গ্রামে মুসলিম এক সম্ভ্রান্ত পরিবারে জন্মগ্রহন করেন। পিতা- মৃত এরফান আলী মোড়ল ও মাতা- ছায়রা খাতুন। শিক্ষাগতা যোগ্যাতা হিসেবে ১৯৬৯ সালে এসএসসি পাশ, ১৯৭২ সালে এইচএসসি পাশ করি। ১৯৭১ সালে বঙ্গবন্ধুর ডাকে মহান স্বাধীনতার যুদ্ধের সময় পাকহানাদার বাহিনীর বিরুদ্ধে যুদ্ধ করেন । ১৯৮৫ সালে প্রথম বার ৩নং সরুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়। দ্বিতীয় বার ১৯৮৮ সাল এবং তৃতীয় বার ২০০৩ সালে বিপুল ভোটে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়। এবং চতুর্থ বারের মতো ২০১৬ সালে ২২শে নির্বাচনে নিবাচিত হয়ে দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন।জীবনের শুরু থেকে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আর্দশের অনুপ্রাণিত হয়ে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সাথে সম্পৃক্ত হয়ে আছেন। ১৯৭২ সালে তালা উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক হিসাবে সুনামের সহিত দায়িত্ব পালন করেন। ২০০৩ সালে সরুলিয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি হিসাবে নির্বাচিত হই। পরবর্তী ২০১৩ সালে কাউন্সিলদের প্রত্যক্ষ বিপুল ভোটে পূর্নরায় সভাপতি হিসাবে নির্বাচিত হই। বর্তমান সরুলিয়া ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি হিসাবে ও সাতক্ষীরা জেলা আওয়ামীলীগের উপদেষ্ঠা হিসেবে দায়িত্বরত। জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে এবং দলকে সুসংগঠিত করার লক্ষ্যে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছি। বাংলাদেশ রেডক্রিসেন্ট সোসাইাটির আজীবন সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন চার বার ইউপি চেয়ারম্যান দায়িত্বত্বে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন পদে ভূষিত হয়েছি। ২০০৫ সালে ৩০শে জুন তালা উপজেলাকে ১০০’শ ভাগ স্যানিটেশন কফারেজ প্রদানে অবদান রাখায় পুরস্কৃত হই ।২০০৯ সালে খুলনা বিভাগের এলজিএসপি এলআইসি ভুক্ত ইউনিয়নের মধ্যে ১৫টি ইউনিয়ন পরিষদ শ্রেষ্ঠ হয় । এর মধ্যে আমার ইউনিয়ন চতুর্থ স্থান অধিকার করে পুরস্কৃত হয়। বাংলাদেশ জনসংখ্যা নীতি ২০০৯ সালে খসড়া উপর মতামত গ্রহনের খুলনা বিভাগের ১০টি জেলার সাতক্ষীরা জেলা থেকে তৃতীয় স্থান অধিকার লাভ করে পুরস্কৃত হই। সর্বপরি ২০১০ সালে সাতক্ষীরা জেলার মূল্যায়নে শ্রেষ্ঠ চেয়ারম্যান হিসাবে নির্বাচিত হয়ে পুরস্কৃত হই । ২০১৬ সালে ২৬’জুলাই ইউনাইটেড মুভমেন্ট হিউম্যান রাইটস কর্তৃক মানবাধিকার শান্তি পদকে ২০১৬ ভুষিত । ২০১৭ সালে শেরেবাংলা একে ফজলুল হকের পদকসহ সমাজসেবায় বিশেষ অবদানের স্বূকৃতিস্রুপ বিভিন্ন পদের ভূষিত হয়েছেন। চেয়ারম্যান মো. মতিয়ার রহমান এই প্রতিবেদকের সাথে একান্ন কথা হলে তিনি বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার রুপকল্প ২০৪১’বাস্তবায়নে মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত করা ও ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছি এবং সরুলিয়া ইউনিয়নকে উন্নয়নকে আরো একধাপ এগিয়ে নিয়ে যাওয়া পরিকল্পনা। তিনি আরো বলেন, স্থানীয় সংসদ সদস্য এড.মুস্তফা লুৎফুল্লাহ,সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক আবুল কাশেম মোঃ মহিউদ্দীন,তালা উপজেলা নিবার্হী অফিসার মোঃ ফরিদ হোসেন ও তালা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ঘোষ সনৎ কুমারের সুচিন্তিত মতামত নিয়ে উন্নয়ন কাজ এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে । সর্বোপরি পাটকেলঘাটাবাসী দীর্ঘদিনে দাবি পাটকেলঘাটা থানাকে উপজেলা বাস্তবায়নে কাজ চলছে।

মো. রিপন হোসাইন
পাটকেলঘাটা প্রতিনিধি ॥
তারিখ- ১৯০৪.১৭
০১৭৩৮১০৪৪৫৬

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here