পাটকেলঘাটায় দু’মাদক সেবীকে পুলিশের দেয়ার অপবাদে ৪ জনকে কুপিয়ে জখম

0
274

মো. রিপন হোসাইন : পাটকেলঘাটার কুমিরা গ্রামে দু’মাদক সেবীকে পুলিশের কাছে ধরিয়ে দেয়ার অপবাদ দিয়ে সন্ত্রাসীরা একই পরিবারের ৪ জনকে কুপিয়ে রক্তাক্ত জখমের ঘটনা ঘটিয়েছে। ঘটনাটি গতকাল সকাল ৮ টার দিকে থানার কুমিরা মোড়ল পাড়ায় ঘটেছে।
ঘটনার বিবরণে আহতদের পরিবার ও এলাকাবাসী জানান, ঘটনার আগের দিন সোমবার সন্ধ্যায় থানার এস আই আশরাফুজ্জামান গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে ঐ গ্রামের জনাব আলী মাদকাসক্ত পুত্র মিজানুর রহমান খোকন (৩০) ও খোকন খার পুত্র জাহিদুল (৩৩) কে গাজা সেবন অবস্থায় আটক করে থানায় নিয়ে আসে। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে প্রতিবেশী সন্ত্রাসীরা নিরীহ আলম মোড়ল (৩৫) কে পুলিশের হাতে ধরিয়ে দেয়ার অপবাদ দিয়ে মারপিট করতে থাকে। তার ডাক চিৎকার শুনে পুর্ব পরিকল্পনা মোতাবেক জনাবের মেয়ে জোন্সা খাতুন (৩৬) বাড়ি থেকে শুকনা মরিচের গুড়া নিয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত সকলের চোখে মুখে নিক্ষেপ করলে সকলেই জ্বালা যন্ত্রণায় ছটফট করতে থাকে। এসময় সন্ত্রাসীরা ধারালো দা, শাবল, লোহার রড নিয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত ৪ জনকে কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। এতে মোসলেম মোড়ল (৭৫), আফতাব মোড়ল আতা (৩৬), রহিম মোড়ল (৭২) ও আলম মোড়ল (৩৫)’র মাথা সহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে ধারালো দা দিয়ে এলোপাতাড়ি দা দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে। এসময় প্রতিবেশীরা ঘটনাস্থল থেকে আহতদের উদ্ধার পূর্বক এ্যাম্বুলেন্স যোগে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানে চিকিৎসাধীন মোসলেম মোড়ল ও আফতাব মোড়ল’র অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়। স্থানীয় ইউপি মেম্বর শেখ আলাউদ্দিন জানান, গাজা সেবনকারীদের পুলিশে ধরিয়ে দেয়ার মিথ্যা অভিযোগে ক্ষিপ্ত হয়ে আটককৃত দুই মাদকাসক্তের পরিবারের লোকজন এ সন্ত্রাসী কর্মকান্ড চালিয়েছে। এ বিষয়ে থানার এসআই আশরাফুজ্জামান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান। এ ঘটনায় আবু মুছা বাদি হয়ে জনাব আলীকে প্রধান করে ৫ জনের নাম উল্লেক সহ অজ্ঞাতনামা ৪/৫ জনের নামে থানায় একটি এজাহার দাখিল করেন। এদিকে পুলিশের হাতে আটক দু’মাদকসেবী মিজানুর রহমান খোকন ও জাহিদুল ইসলামকে গতকাল দুপুরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার ভ্রাম্যমান আদালতে হাজির করা হলে প্রত্যেককে ৩ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ডাদেশ প্রদান করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here