পাটকেলঘাটায় ১২ নং যুগিপুকুরিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে দূনিতি’র অভিযোগ

0
346

মো.রিপন হোসাইন, পাটকেলঘাটা : তালা উপজেলার পাটকেলঘাটায় ১২ নং যুগিপুকুরিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে চলমান ম্যানেজিং কমিটি গঠন ও নানা অনিয়ম ও দূনিতির অভিযোগ উঠেছে। গতকাল বিদ্যালয়ে সরেজমিনে গেলে তার দূনিতির অভিযোগ পাওয়া যায়। প্রধান শিক্ষক মোশারাফ হোসেন শিশু শ্রেনি থেকে ৫ম শ্রেনির ৩৩২ শিক্ষার্থীর নিকট থেকে ২টাকা থেকে ৫টাকা করে চাদা গ্রহন করা হয়েছে।এ ব্যাপারে তিনি বলেন টয়লেটের স্যান্ডেল কেনার জন্য এ টাকা নেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া সমাপনী পরীক্ষার্থীদের বিদায় জানাতে তাদের নিকট থেকে ৫০টাকা করে গ্রহন করা হয়েছে যেখানে বর্তমান শিক্ষাবান্ধব সরকার শিশুদের স্কুলে লেখাপড়ার জন্য উপবুত্তি প্রদান করে সেখানে সেই কোমলমতি গরীব শিশুদের নিকট থেকে কেন টাকা নেওয়া হচ্ছে সচেতন অভিভাবকদের দাবী। গত অর্থ বছরে বিদ্যালয়ের অনুকুলে ৪০হাজার টাকা বরাদ্ধের কোন রেজুলেশন দেখাতে পারেনি প্রধান শিক্ষক। প্রধান শিক্ষক মোশারাফ হোসেন ২০১০ সালে যোগদানের পর থেকে এ পর্যন্ত অনিয়মতান্ত্রিক ভাবে সকল ম্যানেজিং কমিটি গঠন করেছেন। এমন কি চলমান ম্যানেজিং কমিটি গঠনেও সরকারের কোন নিয়মনিতি তোয়াক্কা না করেই তার মনোনিত পছন্দের লোকজনকে দিয়ে কমিটি গঠন করেছেন। শুধু কি তাই নাশকতা মামলার আসামীরাও স্থান পেয়েছে এই কমিটিতে। অভিভাবক আসাদুল সরদার ও তার স্ত্রী অভিযোগ করে বলেন আমাদেরকে না জানিয়ে প্রধান শিক্ষক কমিটি গঠন করেছেন। কোন প্রকার নোটিশ ও ভোটার তালিকা অনুমোদন ছাড়াই তিনি কমিটি গঠন করেছেন বলে একাধিক অভিভাবক মৌখিক ভাবে অভিযোগ করেছেন। এ ব্যাপারে প্রধান শিক্ষক মোশারাফ হোসেনের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন বিগত কমিটির সভাপতির মতামতের ভিত্তিতে চলমান কমিটি গঠন করেছেন বলে জানান। বিগত কমিটির সভাপতি হাবিবুর রহমান পিন্টুর কাছে এ ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি বলেন প্রধান শিক্ষক আমাকে বলে নিতিমালায় দুবারের পর সভাপতি হওয়া যায়না তাই আমাকে রাখেনি। এ ব্যাপারে প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার অহিদুল ইসলাম জানান অনিয়মের বিষয়টি আমার জানা ছিল না । বিষয়টি শুনলাম তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here