প্রতিমন্ত্রীর উপস্থিতিতে মনিরামপুর আওয়ামীলীগের দু’গ্রুপের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া, চেয়ার ভাংচুর

0
127

নিজস্ব প্রতিবেদক ; মণিরামপুরে প্রতিমন্ত্রীর উপস্থিতিতে দু’গ্রুপের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া,চেয়ার ভাংচুর
প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্য’র উপস্থিতিতে মণিরামপুরে আওয়ামীলীগের দু’গ্রুপের মধ্যে হাতাহাতি, ধাওয়া-পাল্ট ধাওয়া ও চেয়ার ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে। আজ বুধবার (২২ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যার পরপরই উপজেলার নাগোরঘোপ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে বার্ষিক ক্রীড়া ও নবনির্মিত ভবনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান চলাকালে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। আতঙ্কিত হয়ে পড়েন স্থানীয়রা। বিষয়টি পুলিশ ও দলটির একাধিক সূত্রে নিশ্চিত করা হয়েছে।
সংশ্লিষ্ট একাধিক সূত্র জানায়, সন্ধ্যায় পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্য বিদ্যালয়ের অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত হন। এসময় শ্যামকুড় ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মণিরুজ্জামান মনি এবং দলীয় ইউপি চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার আলমগীর হোসেনের লোকজন প্রতিমন্ত্রীকে স্বাগত জানিয়ে স্লোগান দিতে থাকে। এক পর্যায়ে প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্যকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানানোকে কেন্দ্র করে সাবেক চেয়ারম্যান ও আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মণিরুজ্জামান মণন এবং বর্তমান চেয়ারম্যান আওয়ামীলীগ নেতা আলমগীর হোসেনের লোকজনের মধ্যে ধাক্কাধাক্কি শুরু হয়। এক পর্যায়ে দু’পক্ষের মধ্যে মারামারি বেঁধে যায়। উত্তেজিতরা চেয়ার ভাংচুর করে। এক পর্যায়ে দু’পক্ষের মধ্যে ধাওয়া, পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। পুলিশ তাৎক্ষণিকভাবে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে লাঠিপেটা করে।
চেয়ারম্যান আলমগীর হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, সাবেক চেয়ারম্যান মনির লোকজন গোলযোগের সৃষ্টি করেছে।
ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মনিরুজ্জামান মুঠোফোনে জানান, আলমগীরের লোকজন আমার কর্মীদের উপর অতর্কিতভাবে হামলা করে।
নাম প্রকাশ না করা শর্তে সংশ্লিষ্ট বিদ্যালয়ের একাধিক শিক্ষক গোলমালের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
জানতে চাইলে মণিরামপুর থানার অফিসার ইনচার্জ শেখ মনিরুজ্জামান বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ঘটনা বেশিদূর গড়াতে পারেনি। তাৎক্ষনণিক বিষয়টি নিয়ন্ত্রণে আনা হয়েছে।