বাঁচতে চান যবিপ্রবি ছাত্র তাসিব আহমেদ

0
291

নিজস্ব প্রতিবেদক : সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের হিসাববিজ্ঞান বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র তাসিব আহমেদ (২২) মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন। তার চিকিৎসার জন্য ২০ লাখ টাকা প্রয়োজন। এত টাকার জোগাড় করতে হিমশিম খাচ্ছে দরিদ্র পরিবার। তাকে বাঁচাতে আর্থিক সহযোগিতা কামনা করেছেন তাসিব আহমেদের পরিবার।
গত ২৫ জানুয়ারি সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হন তাসিব। বর্তমানে ঢাকার শমরিতা হাসপাতালে হেড ইনজুরি নিয়ে লাইফ সাপোর্টে আছেন। তাসিব আহমেদ চৌগাছার কমলাপুর গ্রামের মিলন আহমেদের ছেলে।
পিতা মিলন আহমেদ জানিয়েছেন, ‘তাসিব আহমেদ হেড ইনজুরিতে জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে এখন। তাসিবকে বাঁচাতে দ্রুত অপারেশন করতে হবে। এজন্য প্রায় ২০ লক্ষ টাকা দরকার। কিন্তু দরিদ্রতার কারণে এ টাকা ব্যয় করে অপারেশন করানো পরিবারে জন্য দুঃসাধ্য। তাসিব আহমেদের চিকিৎসার জন্য প্রতিদিন প্রায় ৩০ থেকে ৫০ হাজার টাকা খরচ হচ্ছে। চিকিৎসার টাকা জোগাড় করতে জমি বিক্রি করেছি। এছাড়াও চিকিৎসার জন্য যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এবং গ্রামের লোকজন সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছে।’
এদিকে, পরিবার অসচ্ছল হওয়ায় এত টাকা ব্যয় করে অপারেশন করানো তাদের পক্ষে সম্ভব নয়। তাই তাসিব আহমেদের চিকিৎসার জন্য সমাজের বিত্তবান ও দানশীল ব্যক্তির সাহায্য কামনা করেছেন তার পরিবারের সদস্যরা। সাহায্য পাঠানোর জন্য তাসিব আহমেদের চাচা সোহান আহমেদ সোহানের ০১৭৫৪৬৪৭২৬১ (বিকাশ ও রকেট) নম্বরে যোগাযোগ করার অনুরোধ জানানো হয়েছে।