বাকৃবিতে দুই হলের শিক্ষার্থীদের মধ্যে সংঘর্ষ

0
311

বাকৃবি প্রতিনিধি : বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে (বাকৃবি) তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ছেলেদের আবাসিক দুই হলের শিক্ষার্থীদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। বুধবার দুপুর ২টায় আশরাফুল হক হলের সামনে এই ঘটনা ঘটে।

প্রতক্ষ্যদর্শী সূত্রে জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের আশরাফুল হক হলের নূরে আলম আনিক ও শহীদ শামসুল হক হলের সাকিব ফেরদৌস রাতুলের সঙ্গে কথা কাটাকাটির জের ধরে মারামারির ঘটনা ঘটে। ওই ঘটনার জের ধরে প্রথমে শহীদ শামসুল হক হলের সাকিব ফেরদৌস রাতুলসহ তার কিছু বন্ধু আশরাফুল হক হলের নূরে আলম অনিককে মারধর করে। ওই ঘটনার পর গত মঙ্গলবার রাতে সাকিব ফেরদৌস রাতুল বিশ্ববিদ্যালয়ের পার্শ্ববর্তী শেষ মোড় এলাকায় নাস্তা করতে গেলে নূরে আলম অনিক তার কিছু বন্ধুকে নিয়ে সাকিব ফেরদৌস রাতুলকে মারধর করেন। একই ঘটনাকে কেন্দ্র করে বুধবার দুপুর ২টায় আবারও দুই হলের আবাসিক শিক্ষার্থীদের মধ্যে মারামারির ঘটনা ঘটেছে। এ সময় শহীদ শামসুল হক হলের শিক্ষার্থীরা লাঠিসোটা নিয়ে আশরাফুল হক হলের শিক্ষার্থীদের ধাওয়া করে তাদের হল পর্যন্ত নিয়ে যায়। এক সময় তাদের উভয়ের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া হয়। এই সময় বাকৃবি শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি সবুজ কাজী সেখানে গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করেন।

বর্তমানে রাতুল বিশ্ববিদ্যালয়ের পশুপালন অনুষদে দ্বিতীয় বর্ষে এবং অনিক কৃষি অনুষদে প্রথম বর্ষে পড়ছেন। মুঠোফোনে রাতুল এবং অনিকের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তারা কৌশলে মারামারির বিষয়টি এড়িয়ে যান এবং এক সময় এ বিষয়ে কিছুই জানেন না বলে জানান।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. এ কে এম জাকির হোসেন বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের বিশৃঙ্খলা সৃষ্টিকারী কাউকে ছাড় দেয়া হবে না। জড়িতদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি সবুজ কাজী বলেন, ব্যক্তিগত তুচ্ছ ঘটনাকে কন্দ্রে করে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। আামি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনকে সংঘর্ষে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য বলেছি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here