বাঘারপাড়ার রেহানা হত্যায় প্রেমিক নয়নসহ তিনজন অভিযুক্ত

0
74

নিজস্ব প্রতিবেদক : যশোরের বাঘারপাড়ার রেহানা হত্যা মামলায় তার প্রেমিকসহ তিনজনকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট দেয়া হয়েছে। মামলার তদন্ত শেষে আদালতে এ চার্জশিট জমা দিয়েছেন তদন্তকারী কর্মকর্তা পিবিআই’র পরিদর্শক আব্দুস সালাম। চার্জশিটে অভিযুক্ত তিন আসামিকে আটক দেখানো হয়েছে।

নিহত রেহানা ঝিনাইদাহ হরিনাকুন্ডু থানার চরপাড়া গ্রামের মফিজুল ইসলামে মেয়ে।

আসামিরা হলো নড়াইল সদরের সিংগীয়া গ্রামের আবুল কালাম বিশ্বাসের ছেলে রেহানার প্রেমিক নয়ন বিশ্বাস, একই এলাকার খাজা মোল্লার ছেলে মিন্টু মোল্লা ও মৃত বাল্লুকচান ওরফে বাকা বিশ্বাসের ছেলে ইমামুল বিশ্বাস।
মামলার অভিযোগে জানা গেছে, ১০ বছর আগে নড়াইল সদরের সিঙ্গিয়া গ্রামের মিরাজের সাথে রেহেনার বিয়ে হয়। মিরাজের মানসিক সমস্যা হলে রেহেনা তার বাবার বাড়ি চরে যায়। এরমধ্যে রেহেনার চাচাত দেবর নয়নের সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। রেহেনা চাকরি নিয়ে লেবাননে চলে যায়। তার উপার্জিত টাকা দিয়ে নয়নকে মালয়েশিয়া পাঠায়। নয়ন ২০২০ সালের ২ মার্চ দেশে ফিরে আসে। নয়ন গাজীপুরের রেহানার ভাড়া বাসায় ওঠে। পরদিন নয়ন বাড়িতে চলে আসে। ২১ মার্চ বিকেলে রেহেনা ঢাকা থেকে বাড়ির উদ্যেশে রওনা হয়। পরে তার মোবাইল ফোন বন্ধ পায় স্বজনেরা। পরদিন সকালে বাঘারপাড়ার আরজি বল্লামমুখ গ্রামের বালিয়াডাঙ্গা-বামনহাটির কাঁচা রাস্তার পাশের একটি জমিতে রেহানার গলাটাকা লাশ দেখে স্থানীয়রা পুলিশকে জানায়।

এ ঘটনায় নিহতের মা শাহিদা বেগম বাঘারপাড়া থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। মামলাটি প্রথমে থানা পুলিশ পরে পিবিআই তদন্তের দায়িত্ব পায়। এ মামলার দীর্ঘ তদন্ত শেষে আটক আসামিদের দেয়া তথ্য ও স্বাক্ষীদের বক্তব্যে হত্যার সাথে জড়িত থাকায় ওই তিনজনকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট জমা দেয়া হয়।