বাঘারপাড়ায় নির্বাচনী সহিংসতায় আ.লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীসহ আহত ৫

0
72

নিজস্ব প্রতিবেদক:যশোরের বাঘারপাড়ার জহুরপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী (স্বতন্ত্র) চেয়ারম্যান প্রার্থী বদর উদ্দিন মোল্যা ও তার ছেলেসহ পাঁচজনকে পিটিয়ে জখম করেছে প্রতিপক্ষ। সোমবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে মনোনয়নপত্র জমা দিতে যাওয়ার সময় হুলিহট্র গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।আহতদের যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
আহত স্বতন্ত্র প্রার্থী ও বাঘারপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহ-সভাপতি বদর উদ্দিন মোল্যার অভিযোগ, আগামী ২৮ নভেম্বর ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন। তিনি মনোনয়নপত্র জমা দিতে যাচ্ছিলেন। হুলিহট্র গ্রামে পৌঁছালে তার প্রতিন্দ্বন্দ্বী নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আসাদুজ্জামান মিন্টুর লোকজন তাদের উপর হামলা চালায়। হামলায় অংশ নেয় মাসুদ, রশিদ, করিম, জসিম, মমিন ও জাহাঙ্গীর। এ সময় ওই হামলায় তিনি নিজে, তার ছেলে হাসিব ইকবাল লোটাস ও তার কর্মী মাহবুব, চঞ্চল এবং শাহরিয়ার মনুসহ সবাই গুরুতর আহত হন। পরে স্থানীয় লোকজন তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়।
হাসপাতালের জরুরি বিভাগের ডাক্তার আহম্মেদ তারেক শামস জানিয়েছেন, মারপিটের শিকার পাঁচ জনের মধ্যে মাহবুবের অবস্থা আশঙ্কাজনক।
এ বিষয়ে নৌকার প্রার্থী আসাদুজ্জামান মিন্টু সাংবাদিকদের বলেন, বদর উদ্দিন মোল্যার অভিযোগ সঠিক নয়। ষড়যন্ত্র করে তিনি নৌকার প্রার্থীর বদনাম করে ইস্যু তৈরি করছেন। পাশের শালিখা থেকে বিএনপি-জামায়াত লোকজন এনে কাজ করছেন। নিজেরা মারামারি করে নৌকার বদনাম করছেন বদর উদ্দিন।
বাঘারপাড়া থানার ওসি ফিরোজ উদ্দিন জানিয়েছেন , জহুরপুর ইউনিয়নে মারামারির ঘটনায় কয়েকজন আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। ঘটনাস্থল এবং হাসপাতালে পুলিশের পৃথক দুটি টিম পাঠানো হয়েছে।পরিস্থিতি তাদের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে বলেও জানান তিনি।