বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সাবেক সদস্য ও মন্ত্রী তরিকুল ইসলামের চতুর্থ মৃত্যুবার্ষিকী পালিত

0
27

নিজস্ব প্রতিবেদক : যশোরে শ্রদ্ধা ভালোবাসায় বিস্তারিত কর্মসূচি পালনের মধ্য দিয়ে বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সাবেক সদস্য ও মন্ত্রী তরিকুল ইসলামের চতুর্থ মৃত্যুবার্ষিকী পালিত হয়েছে। গতকাল শুক্রবার (৪ নভেম্বর) বর্ষীয়ান এই রাজনীতিকের মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে জেলা বিএনপিসহ অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের গৃহীত তিনদিন ব্যাপী কর্মসূচির প্রথম দিন ছিল। দিনব্যাপী বিস্তারিত কর্মসূচি পালনের মধ্য দিয়ে দলটি নেতাকর্মীরা তাদের প্রয়াত অভিভাবকের প্রতি সর্বোচ্চ শ্রদ্ধা ও আবেগের বহিঃপ্রকাশ ঘটিয়েছেন। দলীয় নেতাকর্মীদের সাথে সাধারণ মানুষেরাও স্বতঃস্ফূর্ত ভাবে এ সকল কর্মসূচিতে অংশ নেন। কর্মসূচির মধ্যে ছিল কালো পতাকা উত্তোলন, কালো ব্যাচ ধারণ,কোরআন খানি,কবর জিয়ারত,দোয়া মাহফিল,পোশাক বিতরণ,খাবার বিতরণ। সকালে জেলা বিএনপির আয়োজনে দলীয় কার্যালয়ে কালো পতাকা উত্তোলন এবং দলীয় নেতাকর্মীদের কালো ব্যাচ ধারনের মধ্য দিয়ে দিনে কর্মসূচি শুরু হয়। এরপর দলীয় কার্যালয়ে কোরআন খানি অনুষ্ঠিত হয়। পরে জেলা বিএনপি নেতৃবৃন্দ দলের খুলনা বিভাগীয় ভারপ্রাপ্ত সাংগঠনিক সম্পাদক অনিন্দ্য ইসলাম অমিতকে সাথে কারবালা কবর স্থানে গিয়ে বর্ষীয়ান রাজনীতিক তরিকুল ইসলামের কবর জিয়ারত করেন নেতৃবৃন্দ। কবর জিয়ারতে জেলা বিএনপি অধীনস্থ সকল ইউনিটের নেতৃবৃন্দ ছাড়াও খুলনা বিভাগে অন্যান্য জেলা নেতৃবৃন্দ অংশ নেন। কবর জিয়ারত শেষে অনিন্দ্য ইসলাম অমিত উপস্থিত নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে কারবালা মোড় এবং পৌর উদ্যানের প্রধান ফটকে নগর বিএনপির ৫ নম্বর ওয়ার্ড শাখার আয়োজনে দুঃস্থদের মাঝে খাবার বিতরণ করেন। জেলা বিএনপির কার্যালয়ে জাতীয়তাবাদী ওলামা দলের আয়োজনে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। পরে একই স্থানে জেলা মহিলাদলের আয়োজনে কোরআন শিক্ষার্থীদের মাঝে বিছানা পত্রসহ শীত বস্ত্র বিতরন করেন জেলা বিএনপির আহ্বায়ক অধ্যাপক নার্গিস বেগম। এরপর জেলা মৎস্যজীবী দলের আয়োজনে কোরআন শিক্ষার্থীদের মাঝে পোশাক বিতরণ করা হয়। পরে জেলা ছাত্রদলের আয়োজনে স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচি পালিত হয়। জেলা বিএনপি কার্যালয় থেকে অনিন্দ্য ইসলাম অমিত আর এন রোড যুবদলের আয়োজনে ঢাকা ব্যাংকের পাশে, নগরের যুবদলে ২ নম্বর ওয়ার্ড শাখার আয়োজনে খালদার রোডে, ৫ নম্বর ওয়ার্ড শাখার আয়োজনে বিমান বন্দর সড়কের রেল গেট,৬ নম্বর ওয়ার্ড শাখার আয়োজেনে রেল বাজার,৭নম্বর ওয়ার্ড বিএনপির আয়োজনে শংকরপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে, জেলা যুবদলের আয়োজনে শংকরপুর মহিলা মাদ্রাসার সামনে,উপশহর ইউনিয়ন বিএনপির আয়োজনে বি-ব্লক বাজারে, জেলা ছাত্রদলের আয়োজেনে কারবালা পীর নূর বোরহান শাহ হাফিজিয়া মাদ্রাসা ও এতিম খানার শিক্ষার্থীদের মাঝে রান্না করা খাবার বিতরণ করেন। এদিকে জেলা কৃষকদল বিরামপুুর শামসুল উলুম কওমী মাদ্রাসায় কোরআন খানি ও দোয়া মাহফিলে আয়োজন করে। পরে মাদ্রাসার শিক্ষার্থীদের মাঝে রান্না করা খাবার পরিবেশন করা হয়। চাঁচড়া ইউনিয়ন বিএনপির আয়োজনে ভাতুড়িয়া বাজারে দোয়া মাহফিল শেষে দুঃস্থদের মাঝে খাবার বিতরণ করা হয়। সদর উপজেলা প্রতিটি ইউনিয়ন এবং ওয়ার্ডে স্থানীয় বিএনপিও অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের আয়োজনে তরিকুল ইসলামের আত্মার মাগফিরাত কামনায় দোয়া মাহফিল ও দুঃস্থদের মাঝে খাবার বিতরণ করা হয়। এছাড়াও বাদ জুমা স্থানীয় বিএনপি নেতাকর্মী ও ব্যাক্তিবর্গের আয়োজেন মসজিদে মসজিদে যশোর উন্নয়নের কারিগরের আত্মার মাগফিরাত কামনায় দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। দিনব্যাপী সকল কর্মসূচিতে অংশ নেন, জেলা বিএনপির সদস্য সচিব অ্যাড.সৈয়দ সাবেরুল হক সাবু, যুগ্ম-আহ্বায়ক দেলোয়ার হোসেন খোকন, বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও সাবেক সংসদ সদস্য শহিদুজ্জামান বেল্টু, যশোর জেলা আহ্বায়ক কমিটির সদস্য গোলাম রেজা দুুলু, অ্যাড. মো. ইসহক, আব্দুস সালাম আজাদ,হাজী আনিছুর রহমান মুকুল, কাজী আজম, সিরাজুল ইসলাম, ঝিনাইদহ জেলা বিএনপির সভাপতি অ্যাড. এম এ মজিদ, সাধারণ সম্পাদক জাহিদুজ্জামান মনা, নড়াইল জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মনিরুল ইসলাম, বিএনপি নেতা ও নড়াইল পৌরসভার সাবেক মেয়র জুলফিকার আলী জেলা কৃষকদলের সাধারণ সম্পাদক উপাধ্যক্ষ মকবুল হোসেন, সিনিয়র সহ-সভাপতি শিকদার সালাউদ্দিন, জেলা মহিলা দলের সভানেত্রী রাশিদা রহমান, সাধারণ সম্পাদক ফেরদৌসী বেগম, জেলা যুবদলের সভাপতি এম তমাল আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক আনসারুল হক রানা, জেলা মৎস্যজীবী দলের আহ্বায়ক ইসমাইল হোসেন টেনিয়া, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি রবিউল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা আমির ফয়সাল, সিনিয়র সহ-সভাপতি নির্মল কুমার বিট,জেলা ছাত্রদলের সভাপতি রাজিদুর রহমান সাগর, সাধারণ সম্পাদক কামরুজ্জামান বাপ্পি,জেলা মৎস্যজীবী দলের সিনিয়র যুগ্ম-আহ্বায়ক হাসানুজ্জামান বাবলু চাঁচড়া ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি রেজাউল করিম, সাধারণ সম্পাদক ফজলুল আলম প্রমুখ।#