বিনম্র শ্রদ্ধায় যশোরে শহীদ বুদ্ধিজীবীদের স্বরণ

0
43

ডি এইচ দিলসান : জাতীর শ্রেষ্ঠ সন্তানদের প্রতি বিনম্্র শ্রদ্ধায় বধ্যভূমিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ, শোকমিছিল, মসজিদে বুদ্ধিজীবীদের রূহের মাগফিরাত কামনায় দোয়া-মোনাজাত, গতহত্যার দায়ে পাকিস্থানি শেনাদেও আন্তর্জাতিক আদালতে বিচারের দাবিসহ বিভিন্ন কর্মসূচির মাধ্যমে যশোরে শহিদ বুদ্ধিজীবী দিবস পালিত হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে যশোর শহরের শংকরপুর বধ্যভূমিতে জেলা প্রশাসক তমিজুল ইসলাম খান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জাহাঙ্গীর আলম, প্রেসক্লাব সভাপতি জাহিদ হাসান টুকুন, সম্পাদক এসএম তৌহিদুর রহমান, যশোর সংবাদপত্র পরিষদের সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা একরাম-উদ-দৌলা ও সাধারণ সম্পাদক মবিনুল ইসলাম মবিন, যশোর সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি ফারাজী আহমেদ সাঈদ বুলবুল, সাধারণ সম্পাদক এইচআর তুহিনের নেতৃত্বে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। এছাড়াও সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও রাজনৈতিক সংগঠনের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। এছাড়া রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠনসহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। এদিকে শহরে শোক র‌্যালি বের করে যশোর সদর উপজেলা ও পৌর আওয়ামী লীগ।
অপরদিকে, যবিপ্রবিতে শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবসের কর্মসূচি শুরু হয় সূর্যোদয়ক্ষণে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের সম্মুখে কালো পতাকা উত্তোলন এবং জাতীয় পতাকা অর্ধনমিতকরণের মাধ্যমে। দিবসটি উপলক্ষ্যে যবিপ্রবি পরিবারের সদস্যরা কালোব্যাজও ধারণ করেন। অতিমারী কোভিড-১৯ এর কারণে অত্যন্ত সংক্ষিপ্ত পরিসরে স্বাস্থ্যবিধি মেনে যবিপ্রবিতে এবারের শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস পালন করা হয়।
সকাল সাড়ে ৮টায় যবিপ্রবির উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ আনোয়ার হোসেনের পক্ষ থেকে যশোর শহরস্থ শংকপুরের শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন জ্যেষ্ঠ অধ্যাপক ও বিশ্ববিদ্যালয়ের সর্বোচ্চ নীতি-নির্ধারণী ফোরাম রিজেন্ট বোর্ডের সদস্য অধ্যাপক ড. মো. আনিছুর রহমান। এরপর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতি, কর্মকর্তা সমিতি ও কর্মচারী সমিতির পক্ষ থেকে শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। পরে যবিপ্রবি শাখা ছাত্রলীগের পক্ষ থেকেও শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। বাদ জোহর বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মসজিদে শহীদ বুদ্ধিজীবীদের রূহের মাগফিরাত কামনায় বিশেষ দোয়া-মোনাজাত করা হয়। দোয়া-মোনাজাত পরিচালনা করেন যবিপ্রবির কেন্দ্রীয় মসজিদের সিনিয়র পেশ ইমাম মাওলানা মোঃ আকরামুল ইসলাম।
দিনব্যাপী এসব কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন যবিপ্রবির কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক মোঃ আব্দুল মজিদ, ডিনস কমিটির আহ্বায়ক ড. মো. মেহেদী হাসান, প্রকৌশল ও প্রযুক্তি অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. সৈয়দ মো. গালিব, কলা ও সামাজিক অনুষদের ডিন ড. মো. আব্দুল্লাহ আল মামুন, রেজিস্ট্রার প্রকৌশলী মো. আহসান হাবীব, ছাত্র পরামর্শ ও নির্দেশনা দপ্তরের পরিচালক ড. মো. আলম হোসেন, শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ তোফায়েল আহমেদ ও সাধারণ সম্পাদক ড. মো. আমজাদ হোসেন, ড.ইঞ্জি, নবনির্বাচিত সভাপতি ড. সেলিনা আক্তার ও নবনির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক ড. মো. আশরাফুজ্জামান জাহিদ, কর্মকর্তা সমিতির সভাপতি এ টি এম কামরুল হাসান, কর্মচারী সমিতির সভাপতি মো. শওকত ইসলাম সবুজ প্রমুখ। কর্মসূচিতে যবিপ্রবির ছাত্রলীগ নেতা বিপ্লব দে শান্ত, শিলা আক্তার, আশিক খন্দকারসহ বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষার্থীও উপস্থিত ছিলেন। এ ছাড়া কর্মসূচিগুলোতে যবিপ্রবির বিভিন্ন বিভাগের চেয়ারম্যানবৃন্দ, দপ্তর প্রধানগণ, শিক্ষক-শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা-কর্মচারীগণ উপস্থিত ছিলেন।