যশোর বিমানবন্দর ম্যানেজার ও সিকিউরিটি ইনচার্জের প্রত্যাহার দাবিতে সাংবাদিকদের স্বারকলিপি প্রদান

0
146

প্রেস বিজ্ঞপ্তি : যশোর বিমানবন্দরে সাংবাদিক নেতৃবৃন্দের সঙ্গে অসদাচরণের প্রতিবাদে এবং বিমানবন্দর ম্যানেজার ও সিকিউরিটি ইনচার্জের প্রত্যাহার দাবিতে বেসামরিক বিমান চলাচল ও পর্যটন মন্ত্রণালয়’র সচিব বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে। যশোরের সকল সাংবাদিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ বুধবার দুপুরে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে এই স্মারকলিপি প্রদান করেন।
স্মারকলিপিতে বলা হয়েছে, বিমানবন্দর নিরাপত্তাবেষ্টনির মধ্যে থাকা একটি স্পর্শকাতর স্থান। যশোরের সাংবাদিকরা সবসময়ই বিমানবন্দর এলাকায় নিরাপত্তা নির্দেশনা মেনে চলার চেষ্টা করেন। তারপরও যশোর বিমানবন্দরের ম্যানেজার ও সিকিউরিটি ইনচার্জের অসদাচরণ, দুর্ব্যবহার ও বিতর্কিত কর্মকান্ডে সাংবাদিক সমাজ যারপরনাই ক্ষুব্ধ ও হতাশ।
সর্বশেষ গত ২৫ ফেব্রুয়ারি’২২ রাতে খুলনা থেকে ঢাকায় গমনের জন্য যশোর বিমানবন্দরে যান বিএফইউজে-বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি ওমর ফারুক। বিমানবন্দরে বিএফইউজে সভাপতির সাথে শুভেচ্ছা বিনিময়ের জন্য যান যশোরের পাঁচজন সাংবাদিক নেতা। এ সময় হঠাৎ করেই বিমানবন্দরের সিকিউরিটি ইনচার্জ সেখানে উপস্থিত হয়ে সাংবাদিক নেতাদের সাথে অসদাচরণ ও দুর্ব্যবহার করেন। এর আগেও বিমানবন্দরের ম্যানেজার ও সিকিউরিটি ইনচার্জ এ ধরনের ঘটনা ঘটিয়েছেন। পাশাপাশি সাংবাদিকদের পেশাগত সহযোগিতার পরিবর্তে দুর্ব্যবহারেরও অভিযোগ রয়েছে। বিমানবন্দরের উন্নয়ন নিয়ে ‘বর্তমান সরকারের উন্নয়ন-অগ্রগতি’র প্রতিবেদন তৈরির জন্য সহযোগিতা চাইলেও তিনি সহযোগিতা তো করেনইনি; উপরন্তু অসদাচরণ করেছেন। তাই যশোর বিমানবন্দরের মতো গুরুত্বপূর্ণ একটি প্রতিষ্ঠানে এমন অযোগ্য ম্যানেজার ও সিকিউরিটি ইনচার্জ বহাল রাখা উচিৎ নয় বলে যশোরের সাংবাদিক সমাজ মনে করে।
যশোর বিমানবন্দরের গুরুত্ব বিবেচনায় এই দু’কর্মকর্তার বিতর্কিত কর্মকা- আমলে নিয়ে তাদেরকে দ্রুত যশোর থেকে প্রত্যাহারের অনুরোধ জানিয়েছেন সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ।
স্মারকলিপিতে স্বাক্ষর করেছেন, প্রেসক্লাব যশোরের সভাপতি জাহিদ হাসান টুকুন, ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিলন, যশোর সংবাদপত্র পরিষদের সভাপতি একরাম উদ দ্দৌলা, সাধারণ সম্পাদক মবিনুল ইসলাম মবিন, যশোর সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি ফারাজী আহমেদ সাঈদ বুলবুল ও সাধারণ সম্পাদক এইচ আর তুহিন, সাংবাদিক ইউনিয়ন যশোরের সভাপতি এম আইউব ও সাধারণ সম্পাদক আকরামুজ্জামান, যশোর জেলা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি শেখ দিনু আহমেদ ও সাধারণ সম্পাদক দেওয়ান মোর্শেদ আলম, টিভি জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের আহবায়ক সাকিরুল কবীর রিটন ও সদস্য সচিব শিকদার খালিদ, বাংলাদেশ ফটো জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশন যশোর শাখার সভাপতি মনিরুজ্জামান মুনির ও সাধারণ সম্পাদক নূর ইমাম বাবুল।
স্মারকলিপি প্রদানকালে স্বাক্ষরকারী নেতৃবৃন্দ ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন, প্রেসক্লাব সহসভাপতি ওহাবুজ্জামান ঝন্টু, সাবেক সহসভাপতি মনোতোষ বসু, নির্বাহী সদস্য সাজেদ রহমান প্রমুখ।
যশোরের জেলা প্রশাসক মো. তমিজুল ইসলাম খান স্মারকলিপি গ্রহণ করে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।