“বেনাপোলে পাচার হওয়া ৩১ নারী-শিশুকে ফেরত পাঠালো ভারত”

0
267

নিজস্ব প্রতিবেদক: ভালো কাজের প্রলোভনে ভারতে পাচার হওয়া ২৮ বাংলাদেশি নারী ও তিন শিশুকে উদ্ধারের তিন বছর পর ফেরত পাঠিয়েছে ভারত সরকার।

বুধবার (৭ জুন) বিকাল ৫টায় ভারতের পেট্রাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশ তাদের ট্রাভেল পারমিট প্রক্রিয়ায় বেনাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশের হাতে তুলে দেয়।

কাগজ-পত্রের আনুষ্ঠানিকতা শেষে পুলিশের কাছ থেকে এনজিও সংস্থা বাংলাদেশ মহিলা আইনজীবী সমিতি ২২ জনকে ও রাইটস যশোর ৯ জনকে গ্রহণ করেছে। তারা দায়িত্ব নিয়ে প্রত্যেককে পরিবারের কাছে পৌঁছে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেয়।

ফেরত আসা ৩১ জনের  বাড়ি যশোর, নড়াইল, খুলনা, সাতক্ষীরা, বাগেরহাট, বরিশাল, ঢাকা, কক্সবাজার ও চট্টগ্রাম জেলার বিভিন্ন এলাকায়।

জানা যায়, সংসারে অভাব অনটনের কারণে ২-৩ বছর আগে এসব নারী ভালো কাজের আশায় দালালের খপ্পরে পড়ে সীমান্ত পথে ভারতে যায়। পরে দালালচক্র তাদের ভালো কাজের প্রতিশ্রুতি ভঙ্গ করে বিভিন্ন ঝুঁকির্পূণ ও অসামাজিক কাজে লিপ্ত হতে বাধ্য করে। খবর পেয়ে ভারতীয় পুলিশ মুম্বাই শহরের বিভিন্ন স্থান তাদের উদ্ধার করে আদালতে পাঠায়। সেখান থেকে রেসকিউ ফাউন্ডেশন নামে ভারতের একটি এনজিও সংস্থা আদালত থেকে ছাড়িয়ে নিজেদের শেল্টার হোমে রাখে। পরবর্তীতে দু’দেশের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের যোগাযোগে ট্রাভেল পারমিটের মাধ্যমে এদের স্বদেশ ফেরার ব্যবস্থা হয়।

বাংলাদেশ মহিলা আইনজীবী সমিতি যশোর শাখার সমন্বয়কারী অ্যাডভোকেট ছালমা খাতুন ও রাইটস যশোরের তথ্য ও অনুসন্ধান কর্মকর্তা তৌফিকুজ্জামান নারী-শিশুদের ফেরত আসার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, প্রথমে ভারতীয় কর্তৃপক্ষ তাদের ২৮ বাংলাদেশী নারী-শিশুকে ফেরতের খবর দেন। পরে কাগজ-পত্রের কাজ শেষ হওয়ায় আরও তিন জনকে ২৮ জনের সঙ্গে যোগ করে।

আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে নিজ নিজ পরিবারের কাছে তাদের পৌঁছে দেওয়া হবে। এসময় কেউ যদি পাচারকারীদের শনাক্ত করে মামলা করতে চায় তাদেরকে আইনি সহয়তাও করা হবে বলে জানান তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here