“বেনাপোল কাষ্টমস কর্মকর্তাদের উপর হামলাকারী পুলিশ সদস্যদদের বরখাস্তের দাবীতে মানব বন্ধন ও র‍্যালি”

0
341

নিজস্ব প্রতিবেদক : বেনাপোল কাস্টমস্ হাউজের সামনে বৃহস্প্রতিবার সকাল সাড়ে ১০ টার সময় বেনাপোল কাস্টমস্ হাউজের সকল কর্মকর্তাগন মানববন্ধন পালন ও র‍্যালি করেছে।
গতকাল সন্ধায় পুলিশের সাথে সংঘর্ষের ঘটনায় ১ঘন্টা কর্মবিরতি পালন করা হয়। এ সময় সকল ধরনের আমদানী রপ্তানি কার্যক্রম বন্ধ থাকে ৷

বুধবার বেনাপোল চেকপাস্টে কাস্টমস্ ইমিগ্রেশনের মধ্যে যাত্রীর ল্যাগেজ নিয়ে অবৈধ অর্থ দাবী করা নিয়ে চেকপোস্টের কাষ্টমস্ও পুলিশের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় ৪ জন কাস্টমস্ কর্মকর্তা আহত হয়। আহত পুলিশ কর্মকর্তা স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।

কাস্টমস এক্সিকিউটিভ অফিসার্স এসোসিয়েশনের সভাপতি রাজস্ব কর্মকর্তা নজরুল ইসলাম বাঙ্গালী বলেন, ইমিগ্রেশন পুলিশ এক পাসপোর্ট যাত্রীর ল্যাগেজ জোর করে কাস্টমস তল্লাশী কেন্দ্র পার করার চেষ্টা করলে সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তারা বাধা দেয়। এসময় তারা উত্তেজিত হয়ে সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা ফরহাদ ও রাশেদ আলী এবং রাজস্ব কর্মকর্তা শুভাশীষ মোদক কে পুলিশ পিটিয়ে আহত করে। খবর পেয়ে আমি গতকাল ঘটনাস্থলে গেলে ওখানে উপস্থিত পুলিশের কাছে জানতে চাইলে পুলিশ আমাকেও মারধর করেছে। পুলিশ সদস্যরা শুধু আমাদের মেরেই ক্ষ্যান্ত হয়নি তারা কাস্টম অফিসও ভাংচুর করেছে। তিনি আল্টিমেটাম দেন যে ২৪ ঘন্টার মধ্যে দোষী পুলিশ কর্মকর্তাদের বরখাস্ত ও শাস্তি দেওয়া না হয় তবে সকল প্রকার কাষ্টমস্ সংশ্লিষ্ট কার্যক্রম বিশেষ করে আমদানী -রপ্তানী বন্ধ করে দেওয়া হবে।

ইমিগ্রেশন ওসি ওমর শরীফ বলেন, ভুল বোঝাবুঝির কারনে এই সংঘর্ষের সুত্রপাত,।উদ্ধর্তন কর্মকর্তাদেরকে জানানো হয়েছে, ইমিগ্রেশনের কাজকর্ম ও যাত্রী ভারতে যাতায়াত স্বাভাবিক রয়েছে ৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here