বেনাপোল পুটখালী সীমান্ত থেকে প্রায় ২ কেজি স্বর্ণসহ আটক ২

0
28

আশানুর রহমান আশা, বেনাপোল প্রতিনিধিঃভারতে পাচারের সময় বেনাপোল পুটখালি সীমান্তে পৃথক অভিযানে মোটরসাইকেলের মধ্যে থেকে ১ কেজি ৯৮৩ গ্রাম ওজনের ১৭ পিচ স্বর্ণের বারসহ দুই জনকে আটক করেছে বিজিবি সদস্যরা। আরো দুই আসামি কৌশলে পালিয়ে যায়। শনিবার (২৪ ডিসেম্বর) দুপুরে বেনাপোল পোর্ট থানাধীন পুটখালি সীমান্ত এলাকা থেকে এ স্বর্ণের চালান আটক করা হয়।

আটককৃত আসামিরা হলেন, বেনাপোল পোর্ট থানাধীন পুটখালি গ্রামের মৃত আজিজুরের ছেলে হাফিজুর রহমান( ৩৪) ও একই এলাকার আব্দুল করিমের ছেলে মেহেদী হাসান(২১)।

পলাতক আসামিরা হলেন, পুটখালি গ্রামের মৃত আবুল কাশেমের ছেলে আব্দুল মান্নান (৩২) ও একই এলাকার জহির উদ্দীনের ছেলে নাঈম উদ্দীন(২৮)।
খুলনা ২১ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল তানভীর রহমান জানান,
গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারি পুটখালি সীমান্ত এলাকা দিয়ে বিপুল পরিমাণ স্বর্ণের একটি চালান ভারতে পাচারের উদ্দেশ্যে নিয়ে যাবে। এমন সংবাদের ভিত্তিতে পুটখালি এলাকায় অভিযান চালিয়ে সন্দেহ ভাজন দুই মোটরসাইকেল আরোহিকে গতি রোধ করতে বলা হয়। এসময় তারা মোটরসাইকেল গতি রোধ না করে পালিয়ে যায়। এবং তাদেরকে ধাওয়া করলে তাদের কাছে থাকা একটি ব্যাগ ফেলে পালিয়ে যায়। এবং সে ব্যাগের মধ্যে থেকে ১৫ পিচ স্বর্ন উদ্ধার করা হয়। পরবর্তীতে একই জায়গায় কিছু সময় পর একই দলের সন্দেহ ভাজন আরো দুই মোটরসাইকেল আরোহিকে গতি রোধ করা হয়। এসময় তাদের মোটরসাইকেল থেকে দুটি স্বর্ণের বার উদ্ধার করা হয়। এবং তাদেরকে আটক করা হয়।

তিনি আরো জানান, উদ্ধারকৃত ১৭ পিচ স্বর্ণের বার ও মোটরসাইকেল আনুমানিক বাজার মূল্য ১ কোটি ৫০ লাখ ৭৭ হাজার টাকা। এবং আটককৃত আসামিদের বিরুদ্ধে স্বর্ণ চোরাচালান আইনে মামলা দিয়ে বেনাপোল পোর্ট থানায় হস্তান্তর করা হবে। এছাড়া পলাতক আসামিদের বিরুদ্ধে মামলা দেওয়া হবে এবং তাদেরকে আটকের চেষ্টা চালানো হচ্ছে বলে তিনি জানান।