ব্যাটে-বলের দারুণ লড়াই করলো বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ে

0
279

ক্রীড়া ডেস্ক : সিলেটে সিরিজের প্রথম টেস্টের প্রথম দিন শেষে ব্যাটে-বলের দারুণ লড়াই দেখা গেল বাংলাদেশ ও জিম্বাবুয়ের মধ্যে। সফরকারীদের পাঁচ উইকেট তুলে ম্যাচ নিজেদের নিয়ন্ত্রণে রেখেছে বাংলাদেশ। অন্যদিকে, শন উইলিয়ামস ও হ্যামিল্টন মাসাকাদজার অর্ধশতকের পর ভর করে দিন শেষে ৯১ ওভারে ২.৫৯ গড়ে ৫ উইকেট হারিয়ে ২৩৬ রান করেছে সফরকারীরা।

শনিবার সকালে সিরিজের প্রথম টেস্ট টসে জিতে ব্যাটিং বেছে নেয় জিম্বাবুয়ে। তবে শুরুটা একেবারে খারাপ হয়নি ওয়ানডেতে ধবলধোলই হওয়া মাসাকাদজাদের। ১০ ওভারে কোনো উইকেট না হারিয়েই তুলে ফেলেন ৩৫ রান। ১১ তম ওভারের চতুর্থ বলে স্লগ সুইপ খেলতে গিয়ে পরাস্ত হন ব্রায়ান চ্যারি। এতে করে তাইজুলের বল গিয়ে তার মিডল স্ট্যাম্প ভেঙে দেয়। ১২ রান পর আবারও তাইজুলের আঘাত। এবার ৬ রান করা টেইলরকে শান্তর ক্যাচ বানিয়ে সাজঘরে পাঠালেন বাঁ-হাতি এই স্পিনার।

এরপর শন উইলিয়ামসকে নিয়ে দলকে টেনে তোলার চেষ্টা করেন অধিনায়ক মাসাকাদজা। দলীয় ৮৫ রানে ভয়ংকর হয়ে উঠা হ্যামিল্টন মাসাকাদজাকে (৫২) সাজঘর পাঠান আবু জয়েদ রাহী। এরপর প্রতিরোধ গড়ে তোলেন জিম্বাবুয়ের মিডল অর্ডারের দুই তারকা শন উইলিয়ামস ও সিকান্দার রাজা। তবে তাদের সেই জুটি বড় হতে দিলেন না অভিষিক্ত নাজমুল ইসলাম অপু। দলীয় ১২৯ রানে রাজাকে সরাসরি বোল্ড করে সাজঘরে পাঠিয়েছেন এই স্পিনার।

সিকান্দার রাজার বিদায়ের পর দলের হাল ধরেন শন উইলিয়ামস ও পিটার মুর। শেন উইলিয়ামসকে বিদায় করে বাংলাদেশকে স্বস্তি এনে দেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। পঞ্চম উইকেট জুটিতে উইলিয়ামস পিটার মুরের সঙ্গে ৭২ রানের পার্টনারশিপ গড়েন। তবে ব্যক্তিগত ৮৮ রানে মেহেদি হাসান মিরাজের ক্যাচে এই বাঁহাতিকে ফেরান রিয়াদ। ১৭৩ বলে ৯টি চারে নিজের ইনিংস সাজান উইলিয়ামস।

দিনের বাকিটা সময় অবশ্য জিম্বাবুয়ের আর কোনো বিপদ হতে দেননি পিটার মুর (৩৭) ও রেগিস চাকাভা (২০)। টাইগার বোলারদের দেখেশুনে খেলে দিন শেষে করেন। স্বাগতিক বোলারদের মধ্যে তাইজুল দুটি উইকেট পান। এছাড়া রাহি, নাজমুল ও রিয়াদ একটি করে উইকেট নেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here