ভারতের পেট্রাপোল বন্দরে জায়গা সংকটে ব্যাহত হচ্ছে রফতানি বানিজ্য

0
16

নিজস্ব প্রতিবেদক : বেনাপোল বন্দর দিয়ে ভারতের পেট্রাপোলে বাংলাদেশি পণ্যের রফতানি বেড়েছে। তবে ভারতের পেট্রাপোল বন্দরের সি ডব্লিউ সি পার্কিং এ জায়গা সংকটসহ নানা সমস্যার কারণে বাংলাদেশি রপ্তানি বাণিজ্য ব্যাহত হচ্ছে।

শনিবার (১১সেপ্টেম্বর) ভারতে প্রবেশের অপেক্ষায় বেনাপোল বন্দর এলাকায় দাঁড়িয়ে রয়েছে প্রায় ৮০০ রফতানি পণ্য বোঝাই ট্রাক। বেনাপোল বন্দর এলাকায় প্রতিনিয়ত সৃষ্টি হচ্ছে যানজট।

বন্দর ব্যবসায়ীরা জানান, বেনাপোল বন্দর থেকে ভারতের পেট্রাপোল বন্দর দিয়ে অল্প সময়ে আমদানি রফতানি বানিজ্য করা যায়। যেকারণে বাংলাদেশি ব্যবসায়ীরা এপথে বানিজ্য করতে আগ্রহী বেশি।

করোনা সংক্রমন হার কমে আসায় বেনাপোল বন্দর দিয়ে বেড়েছে বানিজ্য। বেনাপোল স্থলবন্দরের অবকাঠামো কিছুটা উন্নয়ন হলেও ভারতের পেট্রাপোল বন্দরের অবকাঠামো তেমন উন্নয়ন হয়নি।

ভারতের পেট্রাপোল বন্দরে জায়গা সংকটসহ নানা সমস্যায় ব্যাহত হচ্ছে রফতানি বানিজ্য। ফলে বন্দর এলাকায় দিনের পর দিন রফতানি পণ্য নিয়ে প্রায় দুই কিলোমিটার এলাকা জুড়ে দাঁড়িয়ে থাকছে পণ্য বোঝাই ট্রাক। এতে বেনাপোল বন্দর ও বাজার এলাকায় সৃষ্টি হচ্ছে ব্যাপক যানজট।

রফতানি পণ্যবাহী বাংলাদেশি ট্রাকচালক রাজু হোসেন জানান, রফতানি পণ্য নিয়ে ৫ দিন ধরে বেনাপোল বন্দর এলাকায় দাঁড়িয়ে আছি। এখনও পর্যন্ত পণ্য নিয়ে ভারতে ঢুকতে পারি নাই। আমরা অনেক দুর থেকে এসেছি। এখানে খাওয়া গোসলের অনেক সমস্যা। আমরা দিনের দিন ভারতে পণ্য আনলোড করে নিজেদের গন্তব্য স্থলে ফিরতে চাই।

বেনাপোল আমদানি-রফতানি সমিতি’র সহ-সভাপতি আমিনুল হক জানান, বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে ভারতে রফতানি বানিজ্য বেড়েছে। কিন্তু ভারতের পেট্রাপোল বন্দরে পর্যাপ্ত জায়গা না থাকায় আমাদের চাহিদার মত রফতানি করতে পারছি না।

বেনাপোল ট্রান্সপোর্ট মালিক সমিতি’র সাধারণ সম্পাদক আজিম উদ্দীন গাজী জানান, সারা বন্দর এলাকা জুড়ে ট্রাকের যানজট বেধে আছে। বেনাপোল বন্দর এলাকায় প্রায় এক দুই কিলোমিটার রফতানি গাড়ী গুলো দাঁড়িয়ে রয়েছে ভারতে প্রবেশের অপেক্ষায়। বাইসাইকেল চলার মতও জায়গা নেই এখানে। মানুষ চলাচলের অনুপযোগী হয়ে গেছে বেনাপোল স্থলবন্দর।

বেনাপোল স্থলবন্দর পরিচালক মনিরুজ্জামান জানান, বেনাপোল বন্দর দিয়ে ভারতে রফতানির পরিমান অনেক বৃদ্ধি পেয়েছে। যার কারণে বন্দরে পণ্যজটের সৃষ্টি হয়েছে। আমরা ভারতের পেট্রাপোল বন্দর কর্তৃপক্ষের সাথে কথা হয়েছে অচিরেই সমস্যার সমাধান হবে বলে তারা জানিয়েছেন।

দ্রুত এসব সমস্যার সমাধান হলে বেনাপোল বন্দর দিয়ে আরো দ্বিগুণ রফতানি বানিজ্য বাড়বে বলে দাবী করেন ব্যবসায়ীরা।