ভারতের প্রথম ক্যাবারে ড্যান্সার মিস শেফালি মারা গিয়েছেন

0
396

জলসা ডেস্ক : ভারতের অন্যতম এবং পশ্চিমবঙ্গের প্রথম ক্যাবারে ড্যান্সার মিস শেফালি দীর্ঘ রোগভোগের পরে আজ সকালে কলকাতার কাছে সোদপুরে তাঁর বাড়িতে মারা গিয়েছেন।আসল নাম ছিল আরতি দাস, কিন্তু সেই নামে কেউ তাঁকে চিনতো না। পূর্ব বঙ্গ থেকে কলকাতায় আসা ছিন্নমূল দরিদ্র ঘরের মেয়েটিকে নিতান্তই অল্প বয়েসে একটি অ্যাংলো ইন্ডিয়ান পরিবারে কাজ করতে পাঠানো হয়। সেই বাড়ির মেয়েদের নাচ করতে দেখে, তাদের সঙ্গে পায়ে পা মিলিয়ে বেশ তাড়াতাড়ি চটুল ভঙ্গির নাচ শিখে ফেলে আরতি। সেখান থেকে কলকাতার নামী সাহেবি হোটেল ফিরপোজে ক্যাবারে ড্যান্সার হিসেবে কাজের ডাক আসে। আরতি নাম মুছে ফেলে আত্মপ্রকাশ হয় মিস শেফালির। ক্যাবারে ড্যান্সের মঞ্চে সেই প্রথম কোনও বাঙালি মেয়ের পা পড়ল। তার পর থেকে গোটা ষাট আর সত্তরের দশক কলকাতা তাঁর মোহময়ী নাচে মুগ্ধ, মোহাবিষ্ট। উপাধি পেলেন ক্যাবারে কুইন অফ ক্যালকাটা। বলিউডের সুপার স্টার অমিতাভ বচ্চন থেকে শুরু করে টলিউডের মহানায়ক উত্তমকুমার, এমনকি সুচিত্রা সেন পর্যন্ত মিস শেফালির নাচের ফ্যান ছিলেন। ১৯৭০ সালে সত্যজিৎ রায় তাঁর প্রতিদ্বন্দ্বী আর ‘৭১ সালে সীমাবদ্ধ ছবি দুটিতে ওঁকে দুটি বিশেষ চরিত্রে অভিনয় করান। বলিউডের বেশ কয়েকটি ছবিতেও তিনি ক্যাবারে শিল্পীর ভূমিকায় নামেন। এছাড়াও নিয়মিত কাজ করেছেন কলকাতার বিভিন্ন মঞ্চে। দর্শকদের দেওয়া সন্ধ্যা রাতের শেফালি নামটি নিয়েই তিনি আত্মজীবনী লেখেন। সেই বই প্রকাশের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কথাসাহিত্যিক শংকর, আর অভিনেতা দীপংকর দে। শেষ জীবন আর্থিক অনটনের মধ্যে কেটেছে, তার সঙ্গে যোগ হয়েছে কিডনির অসুখ। রাত পরি নয়, রাতের তারা হতে চেয়েছিলেন তিনি। আজ বৃহস্পতিবার সকালে সেই তারার রাজ্যে পাড়ি দিলেন মিস শেফালি। বয়েস হয়েছিল ৭৭। দীপংকর চক্রবর্তী, ভয়েস অফ আমেরিকা, কলকাতা