ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত ব্যবস্থাপনা’র জন্য বরাদ্দ ৫০ কোটি

0
195

নিজস্ব প্রতিবেদক: ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত ব্যবস্থাপনার জন্য ৫০ কোটি রুপি বরাদ্দ করেছে ভারতের নরেন্দ্র মোদির সরকার। বুধবার সংসদে (রাজ্যসভা) একথা জানিয়েছেন ভারতের স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী কিরেন রিজিজু। একটি লিখিত জবাবে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জানান, ‘ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে ফ্লাডলাইট ও সড়ক নির্মাণের জন্য ২০১৭-২০১৮ আর্থিক বছরে কেন্দ্রীয় বাজেটে সরকার ৫০ কোটি রুপি বরাদ্দ করেছে। এর মধ্যে ভারত-বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক সীমান্ত বরাবর সড়ক নির্মাণে ৭.৯৭ কোটি রুপি এবং ফ্লাড লাইট স্থাপনে ৬.০৬ কোটি রুপি ব্যায় করা হয়েছে।

কংগ্রেস সাংসদ রানী নারে’এর এক প্রশ্নের উত্তরেই কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জানান ‘ভারতের সঙ্গে দীর্ঘ ৪০৯৬ কিলোমিটার আন্তর্জাতিক সীমানা রয়েছে বাংলাদেশের, যা দৈর্ঘ্যে বিশ্বের মধ্যে পঞ্চম। এর মধ্যে ৩০০৪ কিলোমিটার সীমান্ত ফিজিক্যাল ব্যারিয়র দিয়ে ঘেরা হয়েছে। বাকি অংশটি দিন-রাত টহলদারি, অ্যাম্বুশ, বিশেষ অপারেশন, উচ্চ প্রযুক্তি যুক্ত যন্ত্রাংশের ব্যবহারের মাধ্যমে নজরদারি চালানো হবে’।

অন্যদিকে, রাজ্যসভায় বাণিজ্য ও শিল্প মন্ত্রী নির্মলা সীতারামন জানান বাংলাদেশসহ প্রতিবেশি দেশের সঙ্গে বাণিজ্য বৃদ্ধির লক্ষ্যে সীমান্ত হাট নির্মাণ করা হচ্ছে। মন্ত্রী বলেন, এই মুহুর্তে বাংলাদেশ সীমান্ত বরাবর চারটি সীমান্ত হাট রয়েছে। দুইটি রয়েছে মেঘালয়ের কালাইচর ও বালাটে এবং বাকি দুইটি রয়েছে ত্রিপুরার শ্রীনগর ও কমলাসাগর এলাকায়। এর পাশাপাশি ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার ও বাংলাদেশ সরকার আরো অতিরিক্ত ছয়টি সীমান্ত হাট স্থাপন করার ব্যাপারে সহমত হয়েছে। এর মধ্যে দুইটি ত্রিপুরায় এবং বাকি চারটি স্থাপন করা হবে মেঘালয় সীমান্ত বরাবর। একইসঙ্গে মিয়ানমার সীমান্ত বরাবর সীমান্ত হাট নির্মাণে সেই দেশের সাথেও মউ চুক্তি স্বাক্ষর করেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here