মণিরামপুরে পৃথকভাবে এক কৃষক ও এক গৃহবধূর মৃত্যু

0
91

উত্তম চক্রবর্তী,নিজস্ব প্রতিবেদক মণিরামপুর : যশোরের মণিরামপুরে গলায় ফাঁস দিয়ে ও বিদ্যুৎস্পর্শে দুইজন নারী-পুরুষের মৃত্যু হয়েছে। মৃতরা হলেন- রাজগঞ্জের খালিয়া গ্রামের প্রবাসী সাহাবুল হোসেনের স্ত্রী গৃহবধূ রোজিনা খাতুন (৩৫), সে দুই সন্তানের জননী ও ঝাঁপা গ্রামের আলী হোসেনের ছেলে কৃষক ফারুক হোসেন (৪০), সে তিন সন্তানের জনক। রবিবার (১৬ জানুয়ারী-২০২২) দুপুরের দিকে এ পৃথক দুটি মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। জানাগেছে, এদিন দুপুর আড়াইটির দিকে ঝাঁপা গ্রামের ফারুক হোসেন ঝাঁপা বাস্ততলা মোড়ে তার নিজের সেচের মোটর মেরামত করার সময় বিদ্যুৎস্পর্শে আহত হয়। তাৎক্ষনিক স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে যশোর ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে গেলে সেখানকার কর্ব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন। অপর দিকে, একই দিন বিকাল ৪টার দিকে খালিয়া গ্রামের গৃহবধূকে তাদের রান্নাঘর থেকে মৃত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। ওই গৃহবধূ এদিন কখন রান্না ঘরের আড়ার সাথে গলায় ফাঁস দিয়েছে। তা কেউ জানেনা। বিকালে গৃহবধূকে কোথাও খোঁজখবর না পাওয়া, খোঁজাখুঁজির এক পর্যায় রান্না ঘরের আড়ার সাথে ঝুলতে দেখে লোকজন। তখন মৃত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করা হয়। রাজগঞ্জের ঝাঁপা ইউনিয়নের ১নম্বর ও ৮নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মোঃ জামাল হোসেন ও মোঃ আবুল কাসেম উল্লেখিত দুটি মৃত্যুর বিষয় নিশ্চিত করেন এবং ইউপি সদস্য আবুল কাসেম বলে, ওই গৃহবধূ সম্ভাবত পেটের ব্যাথা সইতে না পেরে নিজেই আত্মহত্যা করেছে। এরিপোর্ট লেখা পর্যন্ত (সন্ধ্যা ৬টা) ঘটনাস্থলে পুলিশ আসেনি।