মনিরামপুরের হীরা হত্যার ঘটনায় স্বামী ইউপি সদস্য আটক

0
34

নিজস্ব প্রতিবেদক : যশোরের মনিরামপুর উপজেলার জয়নগর গ্রামের ইটভাটার পাশ থেকে হীরা বেগমের লাশ উদ্ধার ঘটনায় তার স্বামী ইসলাম গাজীকে আটক করেছে র‍্যাব। বৃহস্পতিবার ভোর ৫টার দিকে যশোর শহরের বেজপাড়া এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়। ইসলাম গাজী মনিরামপুর উপজেলার মশ্মিমনগর
ইউনিয়নের আট নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বার।

র‍্যাব-৬ যশোর ক্যাম্পের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কমান্ডার এম নাজিউর
রহমান জানান, ইসলাম গাজী হীরা বেগমের তৃতীয় স্বামী। পারিবারিক গোলযোগের জের ধরে কিছুদিন আগে এলাকায় সালিশ হয়। এ ঘটনায় সালিশের মাতুব্বাররা ইসমাইল গাজীকে মারপিট করে এবং তাদের ডিভোর্স হয়। এতে ক্ষিপ্ত হয় ইসমাইল গাজী। পরবর্তীতে হীরা বেগম আবারও ইসলাম গাজীকে বিয়ে করার জন্য মনিরামপুরে পারখাজুরা গ্রামে ইসমাইলের বাড়িতে আসে। এরপর ইসমাইল গাজী বুধবার ৫ অক্টোবর সন্ধ্যার দিকে হীরা বেগমকে মোটরসাইকেল করে তার বাবার
বাড়ি নড়াইলের উদ্দেশ্যে নিয়ে যাচ্ছিলেন। পথিমধ্যে ফের ঝগড়া শুরু হলে
হীরা বেগম মোটরসাইকেলতে নেমে যায়। এ সময় ইসমাইল গাজী তার কাছে থাকা ছুরি দিয় হীরার বেগমকে কুপিয়ে হত্যা করে।
র‍্যাব অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কমান্ডার এম নাজিউর রহমান আরো জানান, হীরা বেগমের লাশ উদ্ধারের পর তারা ছাড়া তদন্ত শুরু করে। তার মোবাইল নাম্বারের কললিস্টের সূত্র ধরে ইসমাইল গাজীকে আটক করতে সক্ষম হয়ে
তারা। আজ ইসমাইল গাজীকে হত্যা মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে মনিরামপুর থানায় সোপর্দ করা হবে। এরপর মনিরামপুর পুলিশ তাকে
আদালতে উপস্থাপন করবে। নিহত হীরা বেগম নড়াইল সদর উপজেলার বাগডাঙ্গা গ্রামের আত্মার মোল্লার মেয়ে।