মনিরামপুরে কর্মজীবি স্কুল ছাত্রকে শ্বাসরোধে হত্যা

0
220

নিজস্ব প্রতিবেক: যশোরের মনিরামপুরে কর্মজীবি এক স্কুল ছাত্রকে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে। হত্যার পর তার ইঞ্জিন চালিত ভ্যান ছিনিয়ে নিয়েছে দুবর্ৃৃত্ত্বরা। কর্মজীবি স্কুল ছাত্র আল আমিন (১৪) এর লাশ বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে উপজেলার শ্যামকুড় কর্মকারপাড়া রাস্তার ধার থেকে পুলিশ উদ্ধার করেছে। সে দুর্বাডাঙ্গা ইউনিয়নের বাটবিলা গ্রামের মোহাম্মদ মোস্তফার ছেলে। সে দুর্বাডাঙ্গা হাইস্কুলের অষ্টম শ্রেণির ছাত্র। বাবা ক্যানসার রোগী হওয়ায় লেখাপড়ার পাশাপাশি আল-আমিন ইনজিনভ্যান চালিয়ে সংসারে সহযোগিতা করতো। পুলিশের ধারণা, মুখে কাদা ঢুকিয়ে চেপে ধরে শ্বাসরোধ করে  আল আমিনকে হত্যা করা হয়েছে।

বাটবিলা এলাকার ইউপি সদস্য মাসুদুর রহমান মিন্টু জানান, বুধবার সকাল ১০টা পর্যন্ত ওই এলাকার একটি ব্রিজের কাজের ইটের খোয়া টেনেছে আল-আমিন। এরপর বেলা ১১টার দিকে দুর্বাডাঙ্গা বাজার থেকে দুইজন অপরিচিত লোক নিয়ে সে চিনাটোলা বাজারের দিকে বের হয়। পরে রাতে সে আর বাড়ি ফেরেনি। তিনিসহ স্বজনরা সম্ভাব্য সবখানে খবর নিয়ে রাতে আল-আমিনের কোনো সন্ধান মেলাতে পারেননি। সকালে থানায় ডায়েরি করতে আসার সময় শ্যামকুড়ে একটি লাশের খবর পেয়ে তারা ঘটনাস্থলে যান।

মণিরামপুর থানার ওসি মোকাররম হোসেন বলেন, ‘শ্যামকুড়ের চেয়ারম্যান মনিরুজ্জামানের ফোনে পাটক্ষেতে লাশ পাওয়ার খবর জানতে পেরেছি। আমি এবং থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) এনামুল হক ঘটনাস্থলে গিয়েছিলাম। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, শ্বাসরোধ করে ছেলেটিকে হত্যা করা হয়েছে। তাছাড়া লাশের অবস্থা দেখে মনে হচ্ছে না খুন রাতে হয়েছে। এটা বুধবার দিনের বেলায় হতে পারে।’
তবে অধিকতর তদন্তের জন্য লাশ যশোর ২৫০শয্যা জনোরলে হাসপাতাল  মর্গে পাঠানো হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here