মনিরামপুরে প্রার্থীদের মনোনয়ন প্রত্যাহারের হিড়িক

0
63

মণিরামপুর (যশোর) প্রতিনিধি: আসন্ন ২৮ নভেম্বরের ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে যশোরের মণিরামপুরে প্রার্থীতা প্রত্যাহারের শেষ দিনে বৃহস্পতিবার (১১ নভেম্বর) ৪৭ জন মনোনয়ন তুলে নিয়েছেন। তাদের মধ্যে চেয়ারম্যান পদে ১২ জন, সংরক্ষিত নারী পদে ১ জন ও মেম্বার পদে ৩৪ জন প্রার্থী রয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (১১ নভেম্বর) বিকেলে ৮ জন রিটার্নিং কর্মকর্তার দফতর থেকে এমন তথ্য মিলেছে।

প্রার্থীতা তুলে নেয়ায় ১ চেয়ারম্যান ও ১ মেম্বার প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী হচ্ছেন।

তারা হলেন, শ্যামকুড় ইউনিয়নে নৌকার প্রার্থী ইঞ্জিনিয়ার আলমগীর হোসেন ও ঝাঁপা ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বার প্রার্থী মাহাবুবুর রহমান।

রোহিতা ইউনিয়নে ৩ মেম্বার প্রার্থী মনোনয়ন তুলে দিয়েছেন। তারা হলেন, ১ নম্বর ওয়ার্ডে জুয়েল রানা, ৫ নম্বর ওয়ার্ডে শাহাদৎ হোসেন ও ৭ নম্বর ওয়ার্ডে আব্দুল আজিজ।

কাশিমনগর ইউনিয়নে ৬ নম্বর ওয়ার্ডে মেম্বার প্রার্থী মাহাবুর গাজী মনোনয়ন প্রত্যাহার করেছেন।

ভোজগাতী ইউনিয়নে ২ চেয়ারম্যান ও ২ মেম্বার প্রার্থী মনোনয়ন তুলে নিয়েছেন। তারা হলেন, চেয়ারম্যান পদে শরিফুল ইসলাম রিপন ও আসাদুজ্জামান। মেম্বার পদে ৬ নম্বর ওয়ার্ডে কবীর হোসেন ও শেখ আবুল বাসার।

ঢাকুরিয়া ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আব্দুল গনি প্রার্থীতা প্রত্যাহার করেছেন।

হরিদাসকাটি ইউনিয়নে ২ চেয়ারম্যান ও ১ মেম্বার প্রার্থী মনোনয়ন তুলে নিয়েছেন। তারা হলেন, চেয়ারম্যান পদে রাহুল রায় ও দীনবন্ধু রায়। মেম্বার পদে ৬ নম্বর ওয়ার্ডে আব্দুর রহমান।

মণিরামপুর সদর ইউনিয়নে ৩ মেম্বার প্রার্থী মনোনয়ন তুলে নিয়েছেন। তারা হলেন, ১ নম্বর ওয়ার্ডে আব্দুল করিম ও টিটো ইসলাম। ৩ নম্বর ওয়ার্ডে সাইফুল ইসলাম।

খেদাপাড়া ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে শহিদুল ইসলাম নৌকার প্রার্থী আব্দুল আলিম জিন্নাহকে সমর্থন দিয়ে নির্বাচন থেকে সরে গেছেন।

ঝাঁপা ইউনিয়নে ১ চেয়ারম্যান ও ৪ মেম্বার প্রার্থী মনোনয়ন তুলে নিয়েছেন। তারা হলেন, চেয়ারম্যান পদে আবুল বাসার। মেম্বার পদে ১ নম্বর ওয়ার্ডে শহিদুল ইসলাম শহিদ, ২ নম্বর ওয়ার্ডে তরিকুল ইসলাম, ৩ নম্বর ওয়ার্ডে মনিরুজ্জামান ও ৯ নম্বর ওয়ার্ডে গেয়াস উদ্দিন। গেয়াস উদ্দিন প্রার্থীতা তুলে নেয়ায় মাহাবুবুর রহমান বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জিতে যাচ্ছেন।

চালুয়াহাটি ইউনিয়নে ২ নম্বর ওয়ার্ডে সংরক্ষিত নারী সদস্য শাহানাজ পারভিন ও ৭ নম্বর ওয়ার্ডে মাসুম বিল্লাল মনোনয়ন তুলে নিয়েছেন।

শ্যামকুড় ইউনিয়নে ৩ চেয়ারম্যান ও ৬ মেম্বার প্রার্থী মনোনয়ন তুলে নিয়েছেন। তারা হলেন, চেয়ারম্যান পদে মনিরুজ্জামান মনি, আনসার আলী ও ডা. মনিরুজ্জামান। মেম্বার পদে ১ নম্বর ওয়ার্ডে মুজিবুর রহমান, ৪ নম্বর ওয়ার্ডে রবিউল ইসলাম ও আক্তার হোসেন, ৫ নম্বর ওয়ার্ডে ফজলুর রহমান এবং ৯ নম্বর ওয়ার্ডে জুয়েল রানা ও হাফিজুর রহমান।

খানপুর ইউনিয়নে ৪ মেম্বার প্রার্থী মনোনয়ন তুলে নিয়েছেন। তারা হলেন, ৮ নম্বর ওয়ার্ডে আব্দুল হালিম, সিরাজুল ইসলাম ও মশিয়ার রহমান। ৯ নম্বর ওয়ার্ডের আসাদুজ্জামান সরদার।

দূর্বাডাঙা ইউনিয়নে ২ নম্বর ওয়ার্ডে মেম্বার প্রার্থী গৌর রায় প্রার্থীতা তুলে নিয়েছেন।

কুলটিয়া ইউনিয়নে ২ মেম্বার প্রার্থী মনোনয়ন তুলে নিয়েছেন। তারা হলেন, ১ নম্বর ওয়ার্ডে প্রদ্যুৎ বৈরাগী এবং ৭ নম্বর ওয়ার্ডে আজাদ বিশ্বাস।

নেহালপুর ইউনিয়নের ৩ মেম্বার প্রার্থী মনোনয়ন তুলে নিয়েছেন। তারা হলেন, ১ নম্বর ওয়ার্ডে সিদ্দিকুর রহমান, ২ নম্বর ওয়ার্ডে আজগার আলী ও ৩ নম্বর ওয়ার্ডে আলতাফ হোসেন।

মনোহরপুর ইউনিয়নে ২ চেয়ারম্যান ও ৩ মেম্বার প্রার্থী মনোনয়ন তুলে নিয়েছেন। তারা হলেন, চেয়ারম্যান পদের ওয়াহিদুজ্জামান ও দীপালি রানী। ৬ নম্বর ওয়ার্ডে মেম্বার প্রার্থী রবিন্দ্রনাথ সরকার ও মহির উদ্দিন গাজী এবং ৭ নম্বর ওয়ার্ডের আবুল খায়ের।