মনিরামপুর যুবলীগ নেতা হত্যার ঘটনায় মামলা দায়ের, গ্রেফতার দুই

0
90

মনিরামপুর(পৌর) প্রতিনিধি :যশোরের মনিরামপুর উপজেলাতে দুর্বৃত্তদের গুলিতে যুবলীগ নেতা উদয় শংকর বিশ্বাস খুনের ঘটনায় মামলা হয়েছে।সোমবার মধ্য রাতে নিহতের মা ছবি রানী বাদী হয়ে মামলাটি করেছেন। মামলায় চার জনকে আসামী করে এজাহারে উল্লেখ করে ও অজ্ঞাত আসামী করা হয়েছে।এজাহার নামীয় চারজন হলেন, নিহতের চাচাতো ভাই ১। পবিত্র বিশ্বাস, পাঁচাকড়ি গ্রামের ২।পরিতোষ বিশ্বাস, ৩।উত্তম দাস ও ৪।সুবাস বিশ্বাস রাতেই এস আই আব্দুল হান্নানের নেতৃত্বে পুলিশের একটি টিম পরিতোষ বিশ্বাস ও উত্তম দাসকে গ্রেফতার করেছে। মনিরামপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মনিরুজ্জামান মঙ্গলবার সন্ধ্যায় দৈনিক যশোর কে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।পুলিশ ও স্থানীয়সূত্রে জানা গেছে, নিহত যুবলীগ নেতার আপন চাচাতো ভাই পবিত্র বিশ্বাস ক্ষমতাশীল দলের রাজনীতির সাথে জড়িত।

পূর্বে তিনি স্থানীয় টেকেরঘাট মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের সভাপতি ছিলেন। পবিত্র বিশ্বাস দায়িত্বে থাকাকালীন প্রতিষ্ঠানে তিন কর্মচারী নিয়োগের উদ্যোগ নেন। পরে দলীয় বিরোধের কারণে তিনি নিয়োগ সম্পন্ন করতে পারেননি। এরপর পবিত্রকে সরিয়ে ওই বিদ্যালয়ের সভাপতির দায়িত্বে আসেন যুবলীগ নেতা উদয় শংকর বিশ্বাস। তিনি এসে তিন কর্মচারী নিয়োগের কাজ সম্পন্ন করেন।

এছাড়া পবিত্র বিশ্বাস মাছের ঘের ব্যবসার সাথে জড়িত। পাঁচাকড়ি এলাকায় দীর্ঘদিন ধরে পবিত্র বিশ্বাসের দখলে থাকা ঘের উদয় সংকরের সহায়তা না পেয়ে হাতছাড়া হয়ে যায়।রাজনৈতিক ভাবেও বিরোধ ছিল উদয় ও পবিত্র বিশ্বাসের। এসব নিয়ে তাঁরা দুইজন চাচাতো ভাই হয়েও দুই মেরুতে অবস্থান করছিলেন। সেই বিরোধকে কেন্দ্র করে পবিত্র বিশ্বাস ভাড়াটে খুনি দিয়ে উদয় শংকরকে খুন করিয়েছেন বলে ধারণা পুলিশের

যুবলীগ নেতা উদয় শংকর খুনের মামলার তদন্ত কর্মকর্তা নেহালপুর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ উপপরিদর্শক (এসআই) আব্দুল হান্নান। তিনি বলেন, “যুবলীগ নেতা উদয় শংকর খুনের ঘটনায় তদন্ত চলছে। তদন্তের স্বার্থে এক্ষণি সবকিছু বলা যাচ্ছে না। তবে স্কুলের সভাপতি নির্বাচন, ঘের ব্যবসা ও রাজনৈতিক বিরোধের জেরে উদয় শংকর খুন হয়েছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।এসআই আব্দুল হান্নান আরো বলেন, মূল আসামীকে গ্রেফতারে আমরা কাজ করে যাচ্ছি।”

হত্যার শিকার যুবলীগ নেতা উদয় শংকর উপজেলার পাঁচাকড়ি গ্রামের রঞ্জিত বিশ্বাসের ছেলে। তিনি নেহালপুর স্কুল এন্ড কলেজের সংস্কৃতি বিষয়ের প্রভাষক ছিলেন। এছাড়া টেকেরঘাট মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের পরিচালনা পর্ষদের সভাপতির দায়িত্বেও ছিলেন এই যুবলীগ নেতা।গতকাল সোমবার সকালে টেকেরঘাট বাজার থেকে বাজার করে নিজের মোটরসাইকেল চালিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন উদয় শংকর বিশ্বাস। তিনি বাড়ির কাছাকাছি পৌঁছালে দুর্বৃত্তরা তাঁকে গুলি করে। এতে তিনি মোটরসাইকেল থেকে নিচে পড়ে যান। পরে স্বজনরা তাঁকে উদ্ধার করে খুলনা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে নেওয়ার পথে মারা যান উদয় শংকর বিশ্বাস।