মহেশপুরে একই পরিবারের ৬ জন সহ নিহত ৯, শোকের মাতম

0
87

মহেশপুর(ঝিনাইদহ)থেকেঃমহেশপুরে শোকের মাতম, ফরিদপুরে সড়কে নিহত ৯মহেশপুরে নেমেছে শোকের ছায়া। এলাকার ৯ জনের একসাথে মৃত্যুর ঘটনায় মানুষ হতবিহ্বল হয়ে পড়েছে। পরিবারে চলছে শোকের মাতম। মহেশপুর থেকে ঢাকায় যাওয়ার পথে ঢাকা-ঝিনাইদহ মহাসড়কের ফরিদপুরের কানাইপুর মাজকান্দিতে ট্রাক ও মাইক্রোবাস মুখোমুখি সংঘর্ষে আইনজীবী ও ৩ শিশুসহ ৯ জন নিহত হয়েছেন। একইদিনে অপর এক দুর্ঘটনায় ট্রেনে কাটা পড়ে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে।
নিহতের পরিবার ও আহতদের সূত্রে জানা যায়, মহেশপুর উপজেলার সামন্তা গ্রামের তৃতীয় লিঙ্গের একজনের সম্পত্তি ও অর্থ ওয়ারেশ সূত্রে পাবার জন্য রোববার ভোর চারটায় পরিবারের লোকজন মাইক্রোবাসযোগে ঢাকায় যাচ্ছিল। পথিমধ্যে মাজকান্দি নামক স্থানে রোববার সকাল সাড়ে সাতটায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।
দুর্ঘটনায় আহত হাসপাতালে চিকিৎসাধীন সাহেব আলী জানান, তারা ভোর চারটায় ৩ শিশুসহ ১৭জন পরিবারের লোকজন নিয়ে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা হন। সকাল সাড়ে সাতটায় বিপরীত দিক থেকে আসা একটি ট্রাক মাইক্রোবাসের সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। মাজকান্দির একটি তেলপাম্প থেকে জ্বালানি ভরে ট্রাকটি দ্রুতগতিতে মহাসড়কে উঠছিল। এসময় দুটি গাড়ির সংঘর্ষ হয়। এতে মাইক্রোবাস চালক বিল্লাল হোসেন (৩০), তৃতীয় লিঙ্গের নারীর মেয়ে মরিয়ম (২৫), তার শিশু পুত্র ইয়াছিন (৮মাস), মা চায়না খাতুন (৬০), দাদী ফাতেমা বেগম (৬৫), ফুফু আমেনা খাতুন (৩৫) ও আমেনার শিশু সন্তান (৭), সামেদুলের ছেলে নজরুল (৫০), কেরামত আলীর ছেলে ঝিনাইদহ জজ কোর্টের আইনজীবী আব্বাস আলী (৫৫) নিহত হন। এ সংবাদ এলাকায় পৌছালে গোটা মহেশপুরে শোকের ছায়া নেমে আসে। এলাকায় বসবাসরত একসাথে এতোজন মানুষের মৃত্যুতে সবাই হতবিহ্বল হয়ে পড়ে। পরিবারের সদস্যদের তারা সান্তনা দেবার ভাষা হারিয়ে ফেলে। এছাড়া, দুর্ঘটনায় আহত আরো কয়েকজন ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
মহেশপুর উপজেলার কাজীরবেড় ইউপি চেয়ারম্যান সেলিম রেজা এ রিপোর্ট লেখার সময় ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে অবস্থান করছিলেন। তিনি বলেন, এ দৃশ্য দেখার মত নয়, লাশগুলি তিনি নিয়ে আসার চেষ্টা করছেন।
এদিকে, সড়ক দূর্ঘটনায় ৯জন নিহতের ঘটনায় ঝিনাইদহ-৩ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাড. শফিকুল আজম খাঁন চঞ্চল গভীর শোক প্রকাশ করেছেন। এক বিবৃতিতে তিনি শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়েছেন।
অপরদিকে, এদিন সকালে রেলে কাটা পড়ে মারা গেছে নাঈম মাতুব্বর (২০) নামে এক যুবক। সে ফরিদপুরের মানিকদাহ ইউনিয়নের ব্রাহ্মনকান্দা গ্রামের বেল্লাল মাতুব্বরের ছেলে।
রেলওয়ে পুলিশের উপ-পরিদর্শক তপন কুমার জানান, সকালে ভাঙ্গা হতে রাজবাড়ীগামী লোকাল ট্রেনটি পুখুরিয়া স্টেশন ত্যাগ করার পরই ছেলেটি ট্রেনের নিচে কাটা পড়ে। ময়না তদন্ত শেষে লাশ পরিবারের নিকট হস্তান্তর করা হবে।