মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ড যশোর বোর্ড কমিটির সভার সিদ্ধান্তকে উপেক্ষা করে আইন উপদেষ্টার দায়িত্ব পালন

0
309

এম আর রকি, যশোর: বোর্ড কমিটির সিদ্ধান্তকে উপেক্ষা করে আইন উপদেষ্টা এ্যাডভোকেট আজিজুর রহমান দায়িত্ব পালন করছেন বলে খবর পাওয়া গেছে। এমনকি তিনি নাম সংশোধন,বয়স সংশোধন কমিটির মিটিংয়ে উপস্থি ত হচ্ছে। প্রতি মিটিংয়ে উপস্থিত হওয়ার জন্য দৈনিক ১৮শ’ টাকা বিল  তিনি জমা দিলেও তা অনুমোদন দেওয়া নিয়ে দেখা দিয়েছে জটিলতা। ফলে চুক্তিভিত্তিক চাকুরী মেয়াদ শেষ হওয়ার পরও দায়িত্ব পালনে দেখা দিয়েছে নানা গুঞ্জন। বোর্ড কমিটির সিদ্ধান্ত মোতাবেক গত ৩০ এপ্রিল তার চুক্তিভিত্তিক চাকুরী মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে।
বোর্ড সংশ্লিষ্ট নির্ভরযোগ্য সূত্রগুলো জানিয়েছে,গত ১৩ এপ্রিল বোর্ড কমিটির ২৫১তম সভা  মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যানের সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত সভায় বোর্ড কমিটির সভাপতি চেয়ারম্যান প্রফেসর মোহাম্মদ আব্দুল আলীম সদস্য প্রফেসর মোঃ আতিয়ার রহমান,অবসর প্রাপ্ত প্রফেসর মোঃ আফসার আলী,যশোর এমএম কলজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মো: মিজানুর রহমান,যশোর পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের অধ্যক্ষ জনাব মোঃ সিদ্দিকুর রহমান,ড. মোহাম্মদ মোস্তফা কামাল,জনাব টি.এম.জাকির হোসেন,কুষ্টিয়া পুলিশ লাইন স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ জনাব নাজমুল আরেফিন,খুলনা সরকারি করোনেশন বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক লায়লা আরজুমান ও ঝিনাইদহ সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সুনীল কুমার অধিকারী উপস্থিত ছিলেন। ওই সভায়, বিশেষ  আমন্ত্রণে উপস্থিত ছিলেন, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ড যশেঅরে সচিব ড. মোল্লা আমীর হোসেন, বোর্ডের উপ-পরিচালক (হি ও নি) মো: এমদাদুল হক ও বোর্ডের উপ-সচিব (ভারপ্রাপ্ত),প্রশাসন ও সংস্থাপন মো: আব্দুস সালাম আজাদ উপস্থিত ছিলেন।  সভায় বোর্ডের চুক্তিভিত্তিক আইন উপদেষ্টা নিয়োগ প্রাপ্ত এ্যাডভোকেট আজিজুর রহমানকে বিভিন্ন কারনে দায়িত্ব থেকে প্রত্যাহার করার সিদ্ধান্ত গ্রহন করা হয়। বোর্ড কমিটির মিটিং আইন উপদেষ্টা পদের জন্য নতুন একজনকে চুক্তি ভিত্তিক নিয়োগ দেওয়ান জন্য কমিটির সিদ্ধান্তক্রমে  যশোর এমএম কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ প্রফেসর আফসার আলীকে দায়িত্ব দেওয়া হয়। তিনি নতুন একজন আইন উপদেষ্টাকে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ দেওয়ার জন্য বোর্ড কমিটির সভাপতির কাছে প্রেরণ করবে। তাকে ওই পদে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ দেওয়ার রেজুলেশনে লেখা হয়। বোর্ডের উপ-সচিব প্রশাসন আব্দুস সালাম ওই মিটিংয়ের রেজুলেশন লেখেন। বোর্ড কমিটির ওই মিটিংয়ে বলা হয় ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত আইন উপদেষ্টা পদটি এ্যাডভোকেট আজিজুর রহমান দায়িত্ব পালন করবেন। পরবর্তীতে বোর্ড কমিটির রেজুলেশন মোতাবেক সাবেক অধ্যক্ষ প্রফেসর আফসার আলী বোর্ড কমিটির সিদ্ধান্তকে বাস্তবায়নে এ্যাডভোকেট প্রদীপ কুমার পাঠককে মনোনীত করে কমিটির সভাপতির কাছে প্রেরণ করেন। বোর্ড কমিটির সিদ্ধান্তকে সম্মান দেখিয়ে প্রফেসর মোঃ আফসার আলী আইন উপদেষ্টা পদটি চুক্তিভিত্তিক নিয়োগের জন্য প্রেরণ করেন। তার পাঠানো এ্যাডভোকেট প্রদীপ কুমার পাঠককে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ না দিয়ে এ্যাডভোকেট আজিজুর রহমান ৩০ এপ্রিলের পর থেকে দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন। সূত্রটি জানিয়েছেন,গত ৩ মে তিনি বয়স সংশোধন কমিটি ও গতকাল ৫ জুন নাম সংশোধন কমিটির মিটিংয়ে উপস্থিত ছিলেন। বোর্ড কমিটির সিদ্ধান্ত মোতাবেক গত ৩০ এপ্রিল আইন উপদেষ্টা এ্যাডভোকেট আজিজুর রহমানের চুক্তিভিত্তিক চাকুরী মেয়াদ শেষ হলেও তিনি দায়িত্ব পালন করায় বোর্ডে কর্মরত কর্মকর্তা কর্মচারী ও বোর্ড কমিটির সদস্যদের মধ্যে দেখা দিয়েছে না গুঞ্জন। দায়িত্ব পালনের ব্যাপারে আইন উপদেষ্টা এ্যাডভোকেট আজিজুর রহমানের ব্যক্তিগত মুঠোফোনে মোবাইল করা হলে বিকাল ৫ টা ৫৪ মিনিটে ফোন বন্ধ পাওয়া যাওয়ার কারনে তার বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।এ ব্যাপারে বোর্ডের সচিব ড. মোল্লা আমীর হোসেনের কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন,গত ৩০ এপ্রিল আইন উপদেষ্টা এ্যাডভোকেট আজিজুর রহমানের চুক্তিভিত্তিক মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে। তারপর থেকে দায়িত্ব পালন ও তার সম্মানীর ব্যাপারে তিনি অনুমোদন দিবেন না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here