মাশরাফিকে শুভেচ্ছাদূতের চিঠি সেনা প্রধানের

0
1753

নিজস্ব প্রতিবেদক : জনপ্রিয়তায় সাকিব ও তামীমকে ছাড়িয়ে গেছেন মাশরাফি। এমনকি বাংলাদেশে গুগল সার্চে ২০১৫ সালে সবাইকে ছাড়িয়ে মুস্তাফিজ যে রেকর্ড করে ছিলেন, ২০১৬ সালে সেই মুস্তাফিজও গুগল সার্চে মাশরাফির পেছনে পড়ে গেছেন।
কোটি কোটি মানুষের এই ম্যাশ ফ্যানকে এবার দেখা যাবে বাংলাদেশ যুব গেমসে। ২০১৪ সালে ইনচন এশিয়ান গেমসে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের অধিনায়ক সেবার গেমস ভিলেজে ১০ হাজার অ্যাথলিটের সঙ্গে একসঙ্গে এক ছাদের নীচে কাটানোয়, এক সঙ্গে ডাইনিং টেবিলে খাবার বিরল সুযোগ পেয়ে বাংলাদেশ অলিম্পিক এসোসিয়েশনের (বিওএ) প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ। এমন এক জনপ্রিয় ক্রিকেটারকে বাংলাদেশ যুব গেমসের জন্য শুভেচ্ছাদূত হিসেবে মনোনীত করায় সব আলো পড়েছে মাশরাফির উপর।
অন্য ২২ খ্যাতনামা ক্রীড়াবিদরা সেখানে মাশরাফির জনপ্রিয়তায় হয়েছেন ম্লান। মাশরাফির প্রতি সারা দেশের ক্রীড়া প্রেমীদের আবেগকে পুঁজি করে যুব গেমসের সাংগঠনিক কমিটি দেশে প্রথমবারের মতো প্রবর্তিত এই সর্ববৃহৎ গেমসের উত্তাপ ছড়িয়ে দিতে চায় বাংলাদেশ অলিম্পিক এসোসিয়েশন। সারা দেশের যুবাদের আদর্শ মাশরাফিকে বাংলাদেশ যুব গেমসের শুভেচ্ছাদূত হিসেবে মনোনীত করেছে যুব গেমসের সাংগঠনিক কমিটি। গত ১৭ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে মাশরাফিকে বাংলাদেশ যুব গেমসের শুভেচ্ছাদূত হিসেবে মনোনীত করার কথা জানানো হয়েছে।
সোমবার (১৮ ডিসেম্বর) জাতীয় প্যারেড গ্রাউন্ডে অনুষ্ঠিত বিজয় সন্ধ্যায় আনুষ্ঠানিকভাবে শুভেচ্ছা দূত হিসেবে মনোনীত করার চিঠি মাশরাফির হাতে তুলে দিয়েছেন সেনা প্রধান, বাংলাদেশ অলিম্পিক এসোসিয়েশনের সভাপতি এবং বাংলাদেশ যুব গেমস-২০১৮ এর প্রধান নির্বাহী জেনারেল আবু বেলাল মোহাম্মদ শফিউল হক এসবিপি, এনডিসি, পিএসসি।
আনন্দের সঙ্গে এই চিঠি গ্রহণ করে বাংলাদেশ যুব গেমস-২০১৮ এর শুভেচ্ছাদূত হিসেবে দায়িত্ব পালন করতে সম্মতি দিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। এ তথ্য বাংলাদেশ যুব গেমসের সাংগঠনিক কমিটির সূত্রে পাওয়া।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here