মিনহাজ জলমহলের বিরোধ : ফাঁকা বাসায় অস্ত্র ও গুলি রেখে ফাঁসানো হয়েছে এনামুল পরিবারের অভিযোগ

0
326

পাইকগাছা প্রতিনিধি : পাইকগাছায় বিরোধপূর্ণ মিনহাজ বদ্ধ জলমহল এলাকায় ১৪৪ ধারা দীর্ঘ স্থায়ী করার দাবী জানিয়েছে এলাকাবাসী। এদিকে অস্ত্র মামলায় এনামুলকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আদালত ১ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করছে। প্রতিপক্ষ সেনা সদস্য রবের ১৪৪ ধারা আবেদনের প্রেক্ষিতে এলাকার শান্তিপ্রিয় মানুষ শান্তি ভঙ্গের আশংকা করছেন। গতকাল সকালে বিরোধপূর্ণ আলোচিত মিনহাজ জলমহল এলাকায় সাংবাদিকদের উপস্থিতির খবরে বিভিন্ন বয়সের শতাধিক নারী-পুরুষ জড়ো হয়ে জলমহলের বিরোধ নিয়ে এবিএম এনামুল ও একই এলাকার তার প্রতিপক্ষ সেনা সদস্য আব্দুর রব ও সালাম গংদের বিরোধের ইতিহাস তুলে ধরে ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ইতোপূর্বে জলমহল নিয়ে উভয়ের মধ্যে দখল, পাল্টা-দখল, হামলা-মামলার ঘটনা ঘটেছে। এনামুলের দখলে থাকা গোড়ার খন্ডের ২শ বিঘা আয়তনের জলমহলটি প্রতিপক্ষ রব-সালাম গংরা বহিরাগত সন্ত্রাসীদের সংগঠিত করে একাধিকবার জলমহলের পাল্টা দখল চেষ্টা চালায় এবং সর্বশেষ উভয়পক্ষের সংঘর্ষে ১৫ ব্যক্তি আহত হলে প্রশাসন কঠোর অবস্থানে যায়। এনামুলের পরিবারের অভিযোগ রব-সালামের অনুগত গড়ইখালীর কামরুল গাইন, মজিদ গাজী, খড়িয়ার সোহাগ সরদার সহ খোরশেদ গাইনরা পাল্টা দখল নিতে ব্যর্থ হওয়ায় সর্বশেষ এনামুলকে ১৫ মে খুলনায় পুলিশে ধরিয়ে দেয়। এ সুযোগ বুঝে ঘটনার রাতে রব গংরা এনামুলের দখলীয় জলমহলের খোলা বাসায় অস্ত্র ও গুলি রেখে তাকে ফাঁসিয়েছেন বলে তার বৃদ্ধ পিতা মাহমুদ গাজী, স্ত্রী গাজী সুলতানা পারভীন সহ একাধিক এলাকাবাসী অভিযোগ করেছেন। তারা এ ঘটনায় সরকারের উচ্চ মহলের হস্তক্ষেপ কামনা করে বিষয়টি তদন্তের দাবী জানিয়েছেন। এদিকে রবিবার সকালে পাইকগাছা সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে অস্ত্র ও বিস্ফোরক মামলায় পুলিশের ৭ দিনের রিমান্ড আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আদালত শুনানী অন্তে এনামুলকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন বলে এ মামলার আসামী পক্ষের আইন আইনজীবী এফএমএ রাজ্জাক গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন। অপর দিকে, সে সদস্য রব ও জলমহল এলাকা থেকে ১৪৪ ধারা প্রত্যাহারের জন্য উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে আবেদন করলে এটা জানাজানির পর এলাকার শান্তিপ্রিয় মানুষ প্রশাসনের কাছে ১৪৪ ধারা দীর্ঘ স্থায়ী করার দাবী জানিয়েছেন। এ বিষয়ে থানার ওসি আমিনুল ইসলাম বিপ্লব এলাকার মানুষ যাতে শান্তিপূর্ণভাবে বসবাস করতে পারে সে জন্য শান্তি বজায় রাখতে ১৪৪ ধারা বহাল রাখার পক্ষে মতামত ব্যক্ত করেছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here