মেয়ের সামনে মাকে ধর্ষণের প্রমাণ মিলেছে, ডিবি’র সেই এসআই সাসপেন্ড

0
55

অনলাইন ডেস্ক : খুলনায় একটি আবাসিক হোটেলে পুলিশের গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) এসআই মো. জাহাঙ্গীর আলমের বিরুদ্ধে মেয়ের সামনে মাকে ধর্ষণের প্রাথমিক সত্যতা পেয়েছে পুলিশ। আজ বৃহস্পতিবার এ ঘটনায় একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে, একইসঙ্গে অভিযুক্তকে সাময়িক সাসপেন্ড করা হয়েছে।

খুলনা থানার ওসি হাসান আল মামুন গণমাধ্যমকে এ খবর নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, বৃহস্পতিবার সকালে তারা হোটেল সুন্দরবন পরিদর্শন এবং হোটেলের মালিক ও কর্মচারীদের সঙ্গে কথা বলেন। এছাড়া ধর্ষণের শিকার নারীর সঙ্গেও কথা বলা হয়েছে। সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথাবার্তা বলে এসআই জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে ধর্ষণের প্রাথমিক সত্যতা পাওয়া গেছে।

ওসি মামুন আরও জানান, ধর্ষণের শিকার নারীর ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। এছাড়া আদালত ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী ভিকটিমের মেয়ের জবানবন্দি রেকর্ড করেছেন। উল্লেখ্য, বাগেরহাটের মোংলা থেকে ভুক্তভোগী ওই নারী তার মেয়েকে চিকিৎসক দেখানোর জন্য গত মঙ্গলবার খুলনায় আসেন। রাতে থাকার জন্য হাদিস পার্কের নিকটে সুন্দরবন হোটেলের ১৩নং রুম বুকিং করে সেখানেই থাকেন।
সেদিন রাত পৌনে তিনটায় ডিবি’র সাব ইন্সপেক্টর জাহাঙ্গীর আলম রুমে ঢুকে মেয়ের সামনে ওই নারীকে ধর্ষণ করেন। এসময় ভুক্তভোগীর চিৎকারে আশপাশে লোকজন হোটেলের নিচে প্রধান ফটকে তালা দিয়ে জাহাঙ্গীর আলমকে আটক করে পুলিশে দেয়। পরে এ ঘটনায় খুলনা সদর থানার দায়ের হওয়া নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের মামলায় জাহাঙ্গীর আলমকে গ্রেফতার দেখিয়ে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়।