যশোরে তাতীলীগ নেতা ছুরিকাঘাতে নিহত

0
43

নিজস্ব প্রতিবেদক : যশোর শহরের বারান্দী মোল্যাপাড়া কবরস্হান এলাকায় দুর্বৃত্তদের ছুরিকাঘাতে আব্দুর রহমান কাকন (৩০) নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন। বুধবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে নারায়ন ঘোষের চা দোকানের সামনে এ হত্যার ঘটনা ঘটে।নিহত কাকন যশোর জেলা তাতীলীগের সাবেক আহ্বায়ক। তিনি ওই এলাকার আব্দুল হামিদের বাড়ির ভাড়াটিয়া মৃত. আব্দুল হামিদের ছেলে। তার মরদেহ হাসপাতাল মর্গে রয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, রাত সাড়ে ১০টার দিকে বারান্দী মোল্লাপাড়া ভাড়া বাসা এলাকার কবরস্থানের পাশে তিন রাস্তার মোড়ে নারায়ন ঘোষের চা দোকানে কাকন বসেছিলেন। রাত সাড়ে ১০টার দিকে ২-৩ জন যুবক দোকানের সামনে এসে কোনোকিছু বুঝে ওঠার আগেই কাকনকে ছুরিকাঘাত করে। তার পেটের বামপাশে দুর্বৃত্তদের আঘাত করা ছুরিতে পেটভেদ করে ক্ষত হয়। ঘটনার পর দ্রুততার সাথে ভৈরব নদের দিকে চলে যায়। স্বজনরা আহত কাকনকে উদ্বার করে যশোর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসলে রাত ১১টার দিকে জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডা. তন্ময় বিশ্বাস জানান, হাসপাতালে আনার পথে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে তার মৃত্যু হয়েছে। তার পেটের বাম পাশে ছুরিকাঘাত করা হয়েছে বলে জানান।

সংবাদ পেয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক সার্কেল) বেলাল হোসাইন, কোতয়ালী মডেল থানার ইনচার্জ মো. তাজুল ইসলাম, ডিবির ইনচার্জ রুপম কুমার সরকার হাসপাতালে গিয়ে নিহতের আত্মীয় স্বজনদের সাথে কথা বলেন এবং দোষীদের আটকের ব্যাপারে তাদের আশ্বস্ত করেন।

নিহত কাকনের মা সুফিয়া বেগম বলেন, কিভাবে কারা আমার কাকনকে মেরেছে কিছু বলতে পারব না। তার স্ত্রী এক সন্তানের জননী শারমিন পারভীনও কিছু বলতে পারেননি। ছোটভাই রিফাত বলেন, আমি ঢাকা থেকে এসেছি। ভাইয়াকে এভাবে হারিয়ে ফেলবো ভাবিনি।

কোতয়ালী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মো. তাজুল ইসলাম, বলেন, হত্যাকারীদের আটকের জন্য পুলিশের একাধিক টিম কাজ শুরু করেছে।