যশোরের অভয়গরের রাকিবুল হত্যা মামলায় একজনকে অস্ত্রসহ আটক

0
99

নিজস্ব প্রতিবেদক : যশোরের অভয়গরের রাকিবুল হত্যা মামলায় একজনকে অস্ত্রসহ আটক করেছে ডিবি পুলিশ। পুলিশের দাবি সে চরমপন্থি সদস্য। আটক সোলায়মান ওরফে জুয়েল মোল্লা ওরফে জুয়েল খুলনার ফুলতলা উপজেলার জামিরা গ্রামের শাহজাহান মোল্লার ছেলে।
যশোর ডিবি জানায়,এসআই শেখ আবু হাসানের নেতৃত্বে এসআই মফিজুল ইসলামের সম্বন্বয়ে একটি টিম শনিবার বিকেলে ঢাকা সাভারের নিমেরটেক এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়। আটকের পর তারা জানতে পারেন সোলায়মান নিউ কমিউনিষ্ট পার্টির সক্রিয় সদস্য। পরে তাকে অভয়নগর আনা হয়। এরপর তার স্বীকারোক্তিতে উপজেলার দত্তগাতি গ্রামের এ ঘটনার সাথে জড়িত আরেক আসামি জিয়াউর রহমান ওরফে জিয়ার বাড়ির গোয়ালঘর থেকে একটি বিদেশেী পিস্তল উদ্ধার করা হয়।
এ ঘটনায় এসআই শেখ আবু হাসান বাদী হয়ে অভয়নগর থানায় পৃথক একটি অস্ত্র মামলা করেছেন।
ডিবি আরও জানায়,আটকের পর সোলায়মান জানিয়েছেন তারা খুলনা ফুলতলার শিমুল ভুইয়ার নির্দেশে ও দত্তগাতি সাইফুল আলম মেম্বারের নেতৃত্বে এ হত্যাকান্ড পরিচালনা করেন । এরপর তারা সটকে পরে।
উল্লেখ্য, গতবছরের ১২ মে রাত আটটার পর অভয়নগর জামিরা বাজার সংলগ্ন রাস্তার ওপর রকিবুল ইসলামকে মাথায় গুলি করে হত্যা করে সন্ত্রাসীরা। এসময় রকিবুল ও তার স্ত্রী মটরসাইকেলে ছিলেন। স্ত্রীর সামনেই নৃশাংশ ভাবে হত্যা করা হয় রকিবুলকে। এ ঘটনায় মামলা হয়। মামলাটি তদন্তের দায়িত্বপায় ডিবি পুলিশ।
তদন্তকালে হত্যার সাথে জড়িত ছয়জনকে আটক করা হয়েছে। তবে এখনো পলাতক রয়েছেন অন্যতম অভিযুক্ত জুয়েল, রাজু ও সাগর।
এছাড়া এ ঘটনার সাথে জড়িত আরেক আসামি সুব্রত মন্ডলকে গত ১১ জানুয়ারি সন্ত্রাসীরা একই স্থানে একইভাবে মাথায় গুলি করে হত্যা করে।#