যশোরের প্রতিথযশা সাংবাদিক শামছুর রহমান হত্যার বিচার র্দীঘ দেড়যুগেও শেষ না হওয়ায় সহকর্মীরা ক্ষুব্দ

0
321

বিশেষ প্রতিনিধি : র্দীঘ দেড় যুগেও যশোরের অকুতোভয় সাংবাদিক শামছুর রহমান কেবল হত্যাকান্ডের বিচারকার্য শেষ হয়নি । স্বামী হত্যার বিচার চেয়ে এখন ক্লান্ত সহ ধর্মিনী সেলিনা আকতার লাকি ও তার পরিবার। সহকর্মীর বিচারের জন্য রাজপথে থাকা সাংবাদিক সমাজ বিচার না পেয়ে ক্ষুব্ধ। কিন্তু তারপরও খুনিদের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তি দেখার অপেক্ষায় নিহতের সহধর্মীনিসহ গোটা সাংবাদিক সমাজ।
আজ ১৬ জুলাই রোববার যশোরের প্রতিথযশা সাংবাদিক শামছুর রহমান কেবলের ১৭তম মৃত্যুবার্ষিকী । ২ হাজার সালের ১৬ জুলাই রাত সোয়া ৮টায় দৈনিক জনকণ্ঠ পত্রিকার যশোর অফিসে সাংবাদিক শামছুর রহমান সন্ত্রাসীদের গুলিতে নির্মমভাবে নিহত হন। হত্যাকান্ডের ১১ বছর ধরে শামছুর রহমান কেবল হত্যা মামলার কার্যক্রম স্থগিত রয়েছে। ২০০৫ সালের জুলাই মাসে বাদী নিহতের স্ত্রী সেলিনা আকতার লাকিকে না জানিয়ে মামলাটি খুলনার দ্রুত বিচার আদালতে স্থানান্তর করা হয়। ওই বছরের সেপ্টেম্বর মাসে লাকি হাইকোর্টে আপিল করে বলেন, মামলার অন্যতম আসামি খুলনার চিহ্নিত সন্ত্রাসী মুশফিকুর রহমান হিরক পলাতক রয়েছে। এই মামলার অন্যান্য আসামিদের সাথে খুলনার সন্ত্রাসীদের সর্ম্পক রয়েছে। ফলে তার পক্ষে খুলনায় গিয়ে সাক্ষ্য দেয়া সম্ভব নয়।
যশোর আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর অ্যাডভোকেট রফিকুল ইসলাম পিটু সাংবাদিকদের বলেন, বাদীর এই আবেদনের প্রেক্ষিতে আদালত মামলাটি কেন যশোরে ফিরিয়ে দেয়া হবে না তার জন্য সরকারের ওপর রুল জারী করেন। কিন্তু সরকারের পক্ষ থেকে রুলের জবাব না দেয়ায় সেই থেকে মামলাটির বিচার প্রক্রিয়া থমকে আছে। শহীদ সাংবাদিক শামছুর রহমানের ভাই ও সাংবাদিকনেতা সাজেদ রহমান সাংবাদিকদের বলেন, সরকারের স্বদিচ্ছায় মামলার বিচারিক কাজ চালু হোক এবং অবিলম্বে শামছুর রহমানের হত্যার বিচার হোক। এমন প্রত্যাশা নিয়ে অপেক্ষায় নিহত সাংবাদিক শামছুর রহমানের স্বজন ও গোটা সাংবাদিক সমাজ।
প্রেসক্লাব যশোরের সভাপতি জাহিদ হাসান টুকুন বলেন, দীর্ঘ দেড় দশকেও সাহসী সাংবাদিকতার অগ্রপথিক শামছুর রহমানের হত্যার বিচার না পেয়ে ক্ষুব্ধ নিহতের সহকর্মী সাংবাদিক সমাজ। যে কোন প্রক্রিয়ায় মামলার কার্যক্রম শুরুর দাবি তাদের। আইনী জটিলতায় মামলার কার্যক্রম থমকে দিতে পারলেও সহকর্মীদের হৃদয় থেকে মুছে ফেলতে পারেনি সাংবাদিক শামসুর রহমানের নাম। দিনটি উপলক্ষ্যে প্রেসক্লাব যশোর, যশোর সাংবাদিক ইউনিয়নসহ বিভিন্ন সংগঠন নানা কর্মসূচী গ্রহন করেছেন । একইসাথে সকলের দাবি জঘন্য এই হত্যাকান্ডের বিচার করে খুনীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করা হোক।#

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here