যশোরের বেনাপোল চেকপোস্ট দিয়ে ১৭ পাসপোর্ট যাত্রীকে হস্তান্তর

0
30

নিজস্ব প্রতিবেদক : টুরিস্ট ভিসায় ভারতে প্রবেশ করে বিভিন্ন স্থানে শ্রমিক হিসেবে কাজ করায় ১৭ বাংলাদেশে আটকের ১০ দিন শেল্টার হোমে থাকার পর বাংলাদেশে হস্তান্তর করেছে ভারতীয় পুলিশ। গত শনিবার (২৪ ডিসেম্বর) রাত ৮ টার সময় তাদেরকে বেনাপোল চেকপোস্ট ইমিগ্রেশন পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেছে ভারতীয় ইমিগ্রেশন পুলিশ।
ফেরত আসা পাসপোর্ট যাত্রীরা হলেন, চট্টগ্রাম জেলার আদেশ কুমার বড়ুয়া (৪৫), সাতক্ষীরা জেলার রামপদ বিশ্বাস (৪০), শংকর কুমার (৩৯), রবীন্দ্র নাথ (৪৫), চন্দন কুমার (৩৮), ধর্মদাস (৪৬), দেবাশিষ (৪৩), বাবু (৪৪), দেবপ্রদীপ (৪৩), গবিন্দ (২৭), তপন কুমার বিশ্বাস (৩২), মিলন মাঝি (৩৪), হরিদাস কুমার মঝি (৫৪), দিপংকর (৩৪), সুমেশ কুমার (৪৩), গৌরপদ মাঝি (৩৮), অমৃত মাঝি (৩৯)।
ভারত থেকে ফেরত আসা পাসপোর্ট যাত্রীরা জানান, তারা ভারতের ব্যাঙ্গালুর শহরে বেশী শ্রমের মুজুরীর জন্য ধান রোপন ও শ্রমিকের কাজ করছিল। কিছুদিন কাজ করার পর পুলিশ তাদের ধরে নিয়ে আদালতের মাধ্যেমে একটি শেল্টার হোমে রাখে। এরপর তাদের দেশে ফেরত পাঠিয়েছে ভারতীয় পুলিশ।
বেনাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশের (ওসি) আবুল কালাম আজাদ জানান, ফেরত আসা সকলের পাসপোর্টে ভিসার মেয়াদ ছিল। এদের সকলকে যশোর রাইটস নামে একটি এনজিও সংস্থা গ্রহন করেছে।
যশোর রাইটস এনজিও সংস্থার এরিয়া কোয়ার্ডিনেটর বজলুর রহমান জানান, তারা গত ১৩ ডিসেম্বর ভোমরা স্থল বন্দর দিয়ে টুরিস্ট ভিসায় ভারতে প্রবেশ করে ব্যাঙ্গালুরে যায়। পরে সেখানে গিয়ে তারা বিভিন্ন ধরনের শ্রমিকের কাজ করে। এসময় সেখানকার পুলিশ তাদেরকে আটক করে ভারতে করিমনগর তেলেংগা সেভ হোমে পাঠায়। পরবর্তীতে সেখানে ১০ দিন থাকার পর তাদেরকে দেশে হস্তান্তর করেছে ভারতীয় পুলিশ।