যশোরের মণিরামপুরে সোনার দোকানে চুরি, নৈশপ্রহরী ও ব্যবসায়ীসহ আটক চার

0
322
উওম চক্তবর্তী : যশোরের মণিরামপুর বাজারে স্মৃতি জুয়েলার্স নামের এক সোনার দোকানে দুর্ধর্ষ চুরির ঘটনা ঘটেছে। রোববার রাতে উপজেলা ভূমি অফিসের সামনের ওই দোকানের পাশের জিসান ষ্টোরের (স্টেশনারী) তালা ভেঙ্গে চোর চক্র সোনার দোকানটিতে ঢোকে। পরে চক্রটি ভেতর দিয়ে জুয়েলার্সের দোকানের দেওয়াল ও লোহার রড কেটে ভেতরে ঢুকে  ১৬ ভরি স্বর্ণ,১৪০ ভরি রুপা ও নগদ ২ লাখ ৩০ হাজার টাকাসহ মোট ১০ লাখ ১০ হাজার টাকার মালামাল নিয়ে যায়। খবর পেয়ে সোমবার সকালে থানা পুলিশ জিসান ষ্টোরের মালিক আব্দুল মতিন,দোকানের কর্মচারি রাজু আহম্মেদ,বাজারের নৈশ প্রহরী মোসলেম ঢালি ও ইসহাক নামের চার জনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য হেফাজতে নিয়েছে। থানার এসআই তপন কুমার চার জনকে হেফাজতে নেয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এই ঘটনায় থানায় মামলার প্রক্রিয়া চলছে।
এদিকে জুয়েলারি দোকানে চুরির ঘটনা শুনে মণিরামপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আমজাদ হোসেন লাভলু,পৌরসভার মেয়র অধ্যক্ষ কাজী মাহমুদুল হাসান,থানার ওসি মোকাররম হোসেন ও ইন্সপেক্টর (তদন্ত) এনামুল হক ঘটনাস্থলে গেছেন। এসময় নেতৃবৃন্দ শোকার্ত দোকানের মালিক কৃষ্ণ কুমার ঘোষকে সান্তনা দেন।
স্মৃতি জুয়েলার্সের মালিক কৃষ্ণ কুমার ঘোষ জানান,রোববার রাত সাড়ে আটটার দিকে তিনি দোকান বন্ধ করে বাসায় ফেরেন। সকাল সাড়ে আটটার দিকে পাশের দোকানদার জিসান ষ্টোরের মালিক আব্দুল মতিন তাকে ফোন করে দোকান চুরির খবর দেন।
মণিরামপুর থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) এনামুল হক বলেন,‘চুরির ঘটনার সাথে জড়িতরা পূর্বপরিকল্পিতভাবে এই ঘটনা ঘটিয়েছে। এটা একদিনের কাজ নয়। তারা আগেও জিসান ষ্টোরে এসেছে।’ সেখান থেকেই পরিকল্পনাটি হয়েছে বলে ধারণা করেন এই কর্মকর্তা।
প্রসঙ্গত,২০১৪ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পরপরই এই কৃষ্ণকুমার ঘোষদের মোহনপুরের বাড়িতে দুর্ধর্ষ ডাকাতির ঘটনা ঘটেছিল। ওইসময় ডাকাতরা স্বর্ণালংকার ও নগদ অর্থসহ প্রায় ২০ লাখ টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে যায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here