যশোরের শার্শায় বেত্রাবতী ও টেংরাখালের ভেড়ীবাধ ও পাটা উচ্ছেদ

0
251

বিশেষ প্রতিনিধি : যশোরের শার্শার উপজেলা প্রশাসন উলাশি যদুনাথপুর খাল ও নিজামপুর টেংরা এলাকায় বেত্রাবতী নদীর ভেড়ীবাধ পাটা ও স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করেছে । উচ্ছেদ অভিযানে ব্যাপক সাড়া মিলেছে। তবে কিছু অসাধৃু দখলদাররা আবারও স্থাপনা সহ বাধ দেওয়ার পায়তারা চালাচ্ছেন। শেষ সীমানা পর্যন্ত উচ্ছেদ অভিযান করা হবে বলে জানান উপজেলা নির্বাহি অফিসার আব্দুস সালাম।
তবে তিনি নদীর গতি প্রকৃতি উপক্ষো করে টেংরা স্কুলের পাশে মার্কেট ও সড়ক ব্রীজের দু পাশে ইমারত গড়ে তোলায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন। অচিরেই এসব স্থাপনা গুড়িয়ে দেওয়া হবে বলে জানান তিনি। বুধবার সকাল থেকেই শ্রমিকদের নিয়ে উপজেলা প্রশাসন সহ স্থানীয়দের সহযোগিতা বেতনা নদীতে দেওয়া বাধ ও পাটা উচ্ছেদ অভিযান পরিচালিত হয়েছে। পর্যায়ক্রমে দখল মুক্ত করা হচ্ছে নদীর বিভিন্ন এলাকা। আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়েছে অবৈধ দখলদারদের টোং ঘর ও পাটাবাধ। এতে মহা খুশি এলাকার মানুষ। ভেড়ীবাধ কাটা কালে স্থানীয়রা জাল দিয়ে মাছ ধরছেন। বর্ষা মৌসুমে পানি হবে অপসারন বাড়বে কৃষি উৎপাদিন। ফসল ফলবে ভাল। তবে এখনও অনেক জলমহল দখলদাররা নিজেদের জিম্মায় রেখেছেন বলে জানান স্থানীয়রা। প্রশাসনকে বৃদ্ধাঙ্গুলী দেকাচ্ছেন তারা। এসব কোন অবৈধ পাটা বা ভেড়ী বাধ রাখা হবেনা বলে জানান উপজেলা নির্বাহি ম্যাজিষ্ট্রেট আব্দুস সালাম। তিনি সবার সহযোগিতা কামনা করেন।
শার্শা উপজেলা নির্বাহি অফিসার আব্দুস সালাম বলেন-দু দফায় জলমহল নদী খাল বিল সহ অবৈধ দখলদারদের উচেছদ অভিযান চলানো হলো। উপজেলার সমস্ত হাকর বাওড় খাল বিল বেতনা অবমুক্ত করা হবে। সরকারের নদী অবমুক্ত ও দখলমুক্ত করতে কারও কোন অভিযোগ গ্রহন করা হবে না। জনগনের সম্পদ ও অধিকার ফিরিয়ে দিতে কাজ করবে উপজেলা প্রশাসন। কৃষক ও সাধারন মানুষের ভাগ্য পাল্টে দিবে বেতনা নদী। দখল দারদের বিরুদ্ধে স্বোচ্ছার রয়েছেন স্থানীয়রা। অভিযান কালে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহি অফিসার আব্দুস সালাম,সমবায় অফিসার আজিজুর রহমান,মৎস্যকর্মকর্তা-শার্শা থানার পুলিশ,সাংবাদিক,শার্শা সদরের সাবেক চেয়ারম্যান কবির উদ্দিন তোতা,আলীম রেজা বাপ্পি,বিপুল হোসেন,আওয়ামীলীগ নেতা ইলিয়াজ আযম,জনপ্রতিনিধি,রাজনৈতিক নেতা কর্মিরা সহ বিভিন্ন সংগঠন উপজেলা প্রশাসনের উচ্ছেদ অভিযানে অংশগ্রহন ও সহযোগিতা করেন। সবার সহযোগিতা কামনা করেন উপজেলা প্রশাসন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here