যশোরের সাংবাদিক আনন্দ দাসের হাত পায়ের রগ কেটে হত্যা চেষ্টা

0
453

বিশেষ প্রতিনিধি : দূর্বৃত্তরা বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় সাংবাদিক আনন্দ দাস (৫২)কে গলা কেটে হত্যার চেষ্টা চালিয়েছে।
গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। যশোর সদরের চাঁচড়া বর্মণপাড়ায় বিলহরিণার পাশে সন্ধ্যারাতে এই ঘটনাটি ঘটে। সে যশোর কেশবপুর উপজেলার মাদারডাঙ্গা গ্রামের শিবপদ দাসের ছেলে। বর্তমানে আনন্দ যশোর থেকে প্রকাশিত দৈনিক প্রতিদিনের কথার অ্যাসাইনমেন্ট এডিটর হিবেবে দায়িত্ব পালন করছেন এবং যশোর শহরের ষষ্ঠিতলাপাড়া এলাকায় বসবাস করেন।
আহত আনন্দ দাস সাংবাদিকদের জানান,বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় সে শহরতলী চাঁচড়া বর্মণপাড়ার মাঠে দাঁড়িয়ে ছিলেন। এ সময় তিন দুর্বৃত্ত তাকে পাশের বিলের কাছে নিয়ে যায়। এরপর ধারালো অস্ত্র দিয়ে তার দুই পায়ের গোড়ালি, বাম হাতের কব্জি ও গলায় পোঁচ মারে। এরপর তিনি অচেতন হয়ে পড়েন।তবে তার উপর আক্রমনের কারণ তিনি বুঝে উঠতে পারেননি তিনি। ঘটনার পর দূবৃর্ত্তরা চলে যাওয়ার পর ওই এলাকার লোকজন বুঝতে পেরে তাকে উদ্ধার করে দ্রুত যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসে। চাঁচড়া বর্মণপাড়ার অনুপ সাংবাদিকদের জানান, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ওই এলাকা থেকে একজন তাকে খবর দেন, বিলের মধ্যে কাঁদামাটি মাখা অবস্থায় এক ব্যক্তি পড়ে আছেন। এ সময় তিনি স্থানীয় লোকজন নিয়ে ওই ব্যক্তিকে উদ্ধার করে জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসেন। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত আনন্দ দাসের শরীরে অস্ত্রোপচার চলছিল। কোতয়ালী থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) আবুল বাশার মিয়া সাংবাদিকদের জানান, খবর শুনে তিনি হাসপাতালে গেছেন। পুলিশ বিষয়টি খতিয়ে দেখছে।

কোতয়ালি থানার ওসি একেএম আজমল হুদা জানান, আনন্দ দাসের সঙ্গে কথা বলা হয়েছে। তিনি জানিয়েছেন বিকেলে শহরের টার্মিনাল এলাকায় অবস্থান করছিলেন। তিনজন অজ্ঞাত যুবক তাকে মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পিছনে বিল হরিণার মধ্যে ডেকে নিয়ে যায়। এছাড়া আর কিছু বলতে পারেননি। চিকিৎসা চলছে পরবর্তীতে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here