যশোরের ১০ জয়িতাকে সংবর্ধনা

0
109


নিজস্ব প্রতিবেদক : যশোরে ১০ জয়িতাকে সংবর্ধনা দেয়া হয়েছে। ‘কমলা রঙের বিশে^র নারী,বাধার পথ দেবেই পাড়ি’ শ্লোগানকে সামনে রেখে আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ ও রোকেয়া দিবস উপলক্ষে এ সংবর্ধনা দেয়া হয়েছে।

যশোর জেলা প্রশাসন ও মহিলা বিষয়ক অধিদফতরের উদ্যোগে বুধবার কালেক্টরেট সভা কক্ষে এই আলোচনা ও সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে যশোরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) শাম্মি ইসলাম বলেছেন, বর্তমানে নারীরা যে স্বীকৃতি পাচ্ছেন এটা তাদের বড় অর্জন। এ অর্জন নিয়ে থেমে থাকলে হবে না। সরকার নারীদের যেসব সুযোগ সুবিধা দিচ্ছেন সেগুলো কাজে লাগিয়ে আরো সামনের দিকে এগিয়ে যেতে হবে।

জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা সকিনা খাতুনের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন বাঁচতে শেখার নির্বাহী পরিচালক এঞ্জেলা গমেজ, জয়তি সোসাইটির নির্বাহী পরিচালক অর্চনা বিশ^াস, রাইটস যশোরের নির্বাহী পরিচালক বিনয় কৃষ্ণ মল্লিক। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জয়িতা সংবর্ধনাপ্রাপ্ত আমেনা খাতুন, ফারহানা ইয়াসমিন প্রমুখ।

আলোচনাসভা শেষে ১০জনকে জয়িতা সংবর্ধনা দেয়া হয়। জেলা পর্যায়ে সংবর্ধিতরা হলেন অর্থনৈতিকভাবে সাফল্য অর্জনকারী চৌগাছার হুদাপাড়া গ্রামের মোছাঃ রোকেয়া আক্তার, শিক্ষা ও চাকরি ক্ষেত্রে সাফল্য অর্জনকারী ঝিকরগাছার গদখালী পটুয়াপাড়া গ্রামের আমেনা খাতুন, সফল জননী নারী হিসেবে শার্শার নৈহাটি গ্রামের মোছাঃ রাবেয়া খাতুন, নির্যাতনের বিভীষিকা মুছে ফেলে নতুন উদ্যমে জীবন শুরু করা নারী ঝিকরগাছার চাঁপাতলা গ্রামের রোকেয়া বেগম ও সমাজ উন্নয়নে অসামান্য অবদান রাখায় ঝিকরগাছার পুরন্দপুর গ্রামের জেসমিন সুলতানা দীপ্তি। উপজেলা পর্যায়ে সংবর্ধিতারা হলেন সদরের অর্থনৈতিকভাবে সাফল্য অর্জনকারী বকচর চৌধুরী পাড়ার ফারহানা ইয়াসমিন, শিক্ষা ও চাকরি ক্ষেত্রে সাফল্য অর্জন কারী উপশহর ডি ব্লকের লাবনী আক্তার, সফল জননী নারী হিসেবে সদরের ছাতিয়ানতলা গ্রামের আবজুনারা বেগম, নির্যাতনের বিভীষিকা মুছে ফেলে নতুন উদ্যমে জীবন শুরু করা নারী বকচর মসজিদপাড়ার ফারহানা ইয়াসমিন ও সমাজ উন্নয়নে অসামান্য অবদান রাখায় শিশু নিলয় ফাউন্ডেশনের নাছিমা বেগম।