যশোরে আট জনের অস্বাভাবিক মৃত্যু

0
210

বিশেষ প্রতিনিধি : গত তিন দিনে যশোর চার গৃহবধূসহ ৭ জন আত্মহত্যা ও একজন খেঁজুর গাছ থেকে পড়ে মারা গেছে। এরা হচ্ছে,যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার কায়েমকোলা গ্রামের মোহর আলীর মেয়ে খুশি (১৭),বাঘারপাড়া উপজেলার জামদিয়া গ্রামের মৃত আব্দুল কাদেরের স্ত্রী শাহনাজ (৪৫),শার্শা উপজেলার গিবা গ্রামের আক্তারুলের স্ত্রী তহমিনা (২৫),ঝিনাইদহ জেলার কালীগঞ্জ উপজেলার ফুলবাড়ি গ্রামের আব্দারের ছেলে উজ্জল (২০),বরগুনা জেলার পাথরঘাটা উপজেলার তল্লাটিমারা গ্রামের ইসা তালুকদারের স্ত্রী খুকুমনি (২৫),যশোর সদর উপজেলার ছোট হৈবতপুর গ্রামের আজম বিশ্বাসের স্ত্রী শিলা বেগম (২৩),যশোরের কেশবপুর উপজেলার চান্দা গ্রামের মুছাদের স্ত্রী রোজিনা (৩৫) ও মনিরামপুর উপজেলার চিনাটোলা গ্রামের গনেশ দাসের ছেলে রমেশ কুমার দাস (৩১)।
পুলিশ স্থানীয় সূত্রে জানাগেছে,খুকুমনি গলায় ফাঁস দিয়ে জেনারেল হাসপাতালে জরুরী বিভাগে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত বলে ঘোষনা করে। অপরদিকে,পেটে ব্যথা সইতে না পেরে শিলা বেগম গলায় ফাঁস দিয়ে শুক্রবার সকাল ৯টায়,পারিবারিক কলহের এক পর্যায় রোজিনা শুক্রবার বিকেলে কীটনাশক পান করে আত্মহত্যা করে,খেঁজুর গাছ কাটতে উঠে পড়ে দিয়ে রমেশ কুমার দাস শুক্রবার রাতে জেনারেল হাসপাতালে ভর্তির পর মারা গেছে। এছাড়া,পারিবারিক কলহের এক পর্যায় তহমিনা শুক্রবার বিকেলে কীটনাশক পান করে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি হলে শনিবার সকালে মারা যায়।প্রেম সংক্রান্ত ব্যাপারে উজ্জল শনিবার সকালে কীটনাশক পান করে,পারিবারিক কলহের এক পর্যায় খুশি কীটনাশক পান করে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তির পর মারা গেছে। স্বামীস্ত্রীর গোলযোগের এক পর্যায় শাহনাজ বৃহস্পতিবার রাতে কীটনাশক পান করে আত্মহত্যা করেছে। মৃত্যু সংক্রান্ত ব্যাপারে কোতয়ালি থানায় পৃথক অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here