যশোরে এক কিশোকে হিজড়া বানানো নিয়ে দু’পক্ষ হিজড়াদের মধ্যে হাতাহাতি

0
132

বিশেষ প্রতিনিধি : হৃদয় মোল্লা নামে এক কিশোরকে হিজড়া বানানোর অভিযোগে হিজড়াদের মধ্যে সংঘর্ষের সৃষ্টি হয়েছে। হিজড়াদের একটি পক্ষ কিশোর হৃদয় মোল্লাকে ধরে কোতয়ালি মডেল থানায় সোপর্দ করে অভিযোগ দায়ের করেছে। সে সাতক্ষীরা জেলার শ্যামনগর উপজেলার বাজারের শাহানারা খাতুনের বাড়ির ভাড়াটিয়া লাল্টুর মোল্লার ছেলে। শনিবার দুপুরে হিজড়াদের দু’পক্ষ কোতয়ালি মডেল থানায় অবস্থান নিয়ে হৈচৈ সৃষ্টি করে।
যশোর শহরের চাঁচড়া রায়পাড়া ৭ নং ওয়ার্ডের মৃত ওমর আলীর সন্তান হিজড়া শেখ রেশমা শনিবার দুপুরে কোতয়ালি মডেল থানায় দায়েরকৃত এজাহারে বলেছেন, শনিবার ১০ আগষ্ট দুপুর ১ টায় চাঁচড়া রায়পাড়াস্থ তারা মন্দির থেকে হৃদয় মোল্লা নামক এক কিশোরকে হিজড়া বানানোকালে উদ্ধার করে। পরে তাকে কোতয়ালি মডেল থানায় নিয়ে আসে। তিনি অভিযোগে আরো উল্লেখ করেন, হৃদয় মোল্লা তাদের কাছে স্বীকার করে, পুরুষ হিজড়া চুমকি ওরফে জাকির, শোহেলী শামীম ওরফে ভাবনা,স্বর্ণা উক্ত হৃদয় মোল্লাকে হিজড়া বানানোর উদ্দেশ্যে নিয়ে আসে। হৃদয় মোল্লাকে উদ্ধারের সময় দু’ পক্ষের হিজড়াদের মধ্যে হাতাহাতির এক পর্যায় সংষর্ঘের সৃষ্টি হয়। উভয় পক্ষ দুপুরে কোতয়ালি মডেল থানায় অবস্থান নিয়ে উভয় পক্ষ উভয় পক্ষকে দায়ি করে। এক পক্ষ পুরুষ ছেলেকে হিজড়া বানানোর অভিযোগে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য থানা কর্তার দৃষ্টি আর্কষন করে। অপর পক্ষ হৃদয় মোল্লাকে থানা থেকে নিয়ে তার পরিবারের কাছে ফেরত দেওয়ার জন্য থানা কর্তার কাছে আবেদন জানান। অপরপক্ষ যারা হিজড়া বানানোর কাজে জড়িত তাদেরকে গ্রেফতার পূর্বক আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের জোর দাবি জানান। এক পর্যায় থানা কর্তা উদ্ধারকৃত কিশোর হৃদয় মোল্লাকে তার প্রকৃত অভিভাবকের জিম্মায় দেওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহন করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here