যশোরে এক সন্তানের জননী রহস্যজনক মৃত্যু ॥ তিনজন আহত

0
371
যশোরে এক সন্তানের জননী রহস্যজনক মৃত্যু ।। আহত ৩

নিজস্ব প্রতিবেদক : যশোরে মনিরা বেগম(২৪) নামের এক স্বামী পরিত্যাক্ত গৃহবধু ও এক সন্তানের জননী চেতনানাশক ওষুধ প্রয়োগ করে নিজে আত্মহত্যা করেছে। এ সময় তিনজন আহত হয়। নিহত মনিরা যশোর ঝিকরগাছা উপজেলার বাকড়ার সোনাকুড় গ্রামের বাসিন্দা ও হাসান আলির স্ত্রী। স্থানীয়রা তাদেরকে উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে ।

আহতরা হচ্ছে যশোর ঝিকরগাছা উপজেলার বাকড়ার সোনাকুড় গ্রামের আব্দুর রাজ্জাকের স্ত্রী রাশিদা বেগম(২৬), ছেলে সাইফুল ইসলাম (১৫) ও ফুপু আক্কাস আলির স্ত্রী জাহানারা বেগম(৫৫)।

আহতরা জানায় বৃহস্পতিবার রাতে প্রচন্ড গরমের কারনে মনিরা তাদেরকে চেতনানাশক ওষুধ মেশানো শরবত খেতে দেয়। এতে তারা চেতনা হারায় এবং মনিরার মৃত্যু ঘটে। পরিবারের লোকজন সকাল ৮টায় আহতদের উদ্ধার করে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। এ সময় কর্তব্যরত চিকিৎসক ওবাইদুর কাদের উজ্জল ও মধুসুধন পাল জানান ২৪ ঘন্টা পার না হলে কিছু বলা সম্ভব নয়। ওই দিন বিকেলে তিনটায় বাকড়া ফাড়ির পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করে।

নিহতের খালু ডালিম জানান বাড়িতে মনিরার লাশ উদ্ধারের সময় যশোর সরকারি এমএম কলেজের শিমুল নামের এক ছাত্রের আইটি পাওয়া যায়। ওই ছাত্রের সাথে মনিরার বিয়ের আগে প্রেমজ সম্পর্ক ছিল। এ সুত্র ধরে শিমুল চেতনানাশক ওষুধ প্রয়োগ করে তাদের বাড়ি থেকে নগদ ছয় লাখ ও চার লাখ টাকার সোনার গহনা চুরি করে সটকে পড়তে পারে বলে দাবি করেন। তবে যশোর বাকড়া পুলিশ ফড়ির ইনচার্জ শিকদার মতিয়ার রহমান দাবি করে বলেন মনিরাকে ধর্ষনের পর তাকে হত্যা করা হতে পারে বলে সুরতহালে জানান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here