যশোরে কিশোরী শিক্ষার্থী অপহরণের অভিযোগে মামলা

0
344

বিশেষ প্রতিনিধি : সদর উপজেলার আন্দোলপোতা গ্রাম থেকে স্কুল পড়–য়া এক শিক্ষার্থীকে অপহরণের অভিযোগে কোতয়ালি মডেল থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। অপহৃতা কিশোরীর পিতা বাদি হয়ে ৩ চিহ্নিত সন্ত্রাসীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। মামলার আসামীরা হচ্ছে, ঝিনাইদহ জেলার কালীগঞ্জ উপজেলার আগমুন্দিয়া গামের ইয়ার আলীর ছেলে দেলোয়ার হোসেন, একই এলাকার আজিত মাষ্টারের ছেলে মো: সাঈদ ও মীর হোসেনের ছেলে মো: সবুজ হোসেনসহ অজ্ঞাতনামা ২/৩জন।
সদর উপজেলার আন্দোল পোতা গ্রামের মৃত কাসোত আলী গাজীর ছেলে বুদো গাজী বুধবার কোতয়ালি মডেল থানায় দায়েরকৃত এজাহারে বলেছেন, উক্ত আসামীদের সাথে তার পূর্ব পরিচয় সম্পর্কে আত্মীয়। আত্মীয়র কারণে বুদো গাজীর স্কুল পড়–য়া মেয়ে শান্তা খাতুনের সাথে কথা বার্তা বলতো। কথা বার্তা বলা ও বাড়িতে আসার সূত্রধরে দেলোয়ার হোসেন শান্তা খাতুনকে স্কুল আসা যাওয়ার প্রাক্কালে নানা আজেবাকে কর্থাবার্তা বলতো। শান্তা প্রশয় না দেওয়ায় তাকে অপহরণ করার ষড়যন্ত্র করতে থাকে। শান্তা খাতুন আন্দোলপোতা গ্রামের স্কুলে ৯ম শ্রেনীতে লেখা পড়া করতো। গত ২৮ নভেম্বর শান্তা খাতুন স্কুলে পরীক্ষা দেওয়ার উদ্দেশ্যে বাড়ি হতে বের হয়। সকাল সাড়ে ৯ টায় আন্দোলপোতা গামের রবি সরদারের বাড়ির সামনে পৌছালে উল্লেখিত আসামীরা শান্তা খাতুনকে প্রলোভন দিয়ে ফুসলিয়ে সাদা রংয়ের মাইক্রোবাস যোগে অপরহরণ করে নিয়ে যায়। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত অপহৃতা শান্তা খাতুন উদ্ধার হয়নি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here