যশোরে ছাগল চুরি করে জবাই করার অভিযোগে ইউপি সদস্য আটক

0
77

নিজস্ব প্রতিবেদক : যশোর সদর উপজেলার দেয়াড়া ইউনিয়নে ছাগল চুরি করে জবাই করার অভিযোগে ইউপি সদস্য মাসুদ রানা ফন্টুকে আটক করেছে পুলিশ। গত শুক্রবার রাতে ছাগল চুরি করার পর জবাই করে মাংস ভাগাভাগি করার সময় অভিযুক্ত ওই ইউপি সদস্যকে মাংসসহ আটক করে কোতোয়ালি মডেল থানা পুলিশ এবং শনিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) বিকেলে তাকে আদালতে সোপর্দ করা হয়।

আটক ইউপি সদস্য মাসুদ রানা ফন্টু ছিলুমপুর গ্রামের আবুল হোসেন মোল্লার ছেলে। তিনি ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য। এর আগে ছাগল চুরির ঘটনায় ভুক্তভোগী ছিলুমপুর গ্রামের সাইফুল ইসলামের স্ত্রী কাজল বেগম বাদী হয়ে ইউপি সদস্যসহ চার সহোযোগির নামে মামলা করেন। মামলায় অনান্য আসামিরা হলেন- একই এলাকার মাসুদ রানা ফন্টু, রিপন, বাবু, সোহাগ ও মিন্টু।

ভুক্তভোগী কাজল বেগম অভিযোগ করে বলেন, গত ১৪ সেপ্টেম্বর ছিলুমপুর মোল্লাপাড়ার মৃত শহর আলী মোল্লার ছেলে সাইফুল ইসলামের সাথে তার বিয়ে হয়। বিয়ের পর আসামিরা বিভিন্ন সময় তাকে ও তার স্বামীকে মানসিক ভাবে অত্যাচার করে আসছিলো। গত ১৬ সেপ্টেম্বর রাত সাড়ে আটটার দিকে অভিযুক্ত ইউপি সদস্য ফন্টুসহ চার সহোযোগিরা তার বাড়িতে ঢোকে। এসময় তারা বিভিন্ন হুমকি ধামকি দেয় এবং মারধর করে, শ্লীলতাহানী ঘটায়। পরে তার পালিত ২০ হাজার টাকা মূল্যের একটি ছাগল নিয়ে চলে যায়। পরে ইউপি সদস্য ফন্টু ও তার সহোযোগিরা ওই ছাগল নিয়ে ছিলুমপুর গ্রামের প্রাথমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন আশরাফের চায়ের দোকানের সামনে নিয়ে জবাই করে। বিষয়টি তিনি জানতে পেরে তার স্বামী সাইফুলকে জানায়। তৎক্ষনাৎ সাইফুল পুলিশে সংবাদ দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মাংস ভাগাভাগির সময় ফন্টুকে আটক করে।

কোতোয়ালি মডেল থানার উপ-পরিদর্শক শরীফ আল মামুন বলেন, ‘স্থানীয় লোকজনের সামনে থেকে খাসির মাংসসহ ইউপি সদস্য মাসুদ রানা ফন্টুকে আটক করা হয়। শনিবার বিকেলে তাকে আদালতে সোপর্দ করা হয়।