যশোরে ছায়া হত্যা কান্ডের রহস্য উদঘাটন, ঘটনার সাথে জড়িত তিনজন গ্রেফতার

0
478

নিজেস্ব প্রতিবেদক : যশোরে নারী হোটেল শ্রমিক ছায়া হত্যা কান্ডের রহস্য উদঘাটন করেছে র‌্যাব। এ ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে তিন কিশোরকে গ্রেপ্তার করেছে। আটককৃতরা হচ্ছে যশোর বাঘারপাড়া থানার কড়াইতলা গ্রামের আকরামের ছেলে মফিজুর রহমান,সদরের বালিয়াডাঙ্গা মান্দারতলা গ্রামের আসাদুর রহমানের ছেলে পাভেজ ও ঝিকরগাছার ঝাউদিয়া গ্রামের আব্দুর রহিমের ছেলে আল-আমিন ওরফে সজিব।

শনিবার দুপুরে র‌্যাব-৬ এর কমান্ডার এক সংবাদ সম্মেলনে জানান, শহরের মনিহার এলাকার বাবু খাবার হোটেলের ৩য় তলায় টিনশেড রুমে হোটেল কর্মচারী ছায়া খাতুরে (১৯) লাশ পাওয়া যায়। ধারণা করা হয়েছিল গভীর রাতে সন্ত্রীরা তাকে ধারোলো ছুরি দিয়ে তাকে হত্যা করে পালিয়ে যায়।

এ সংক্রান্ত যশোর র‌্যাব ক্যাম্পের সদস্যরা  ছায়া হত্যা কান্ডের তদন্ত করতে থাকে। এ সময় ভিকটিমের মোবাইল নম্বর ও তার জীবন-আচরণ পর্যালোচনা করা হয়। এক পর্যায়ে এ ঘটনায় জড়িত তিনজনকে সন্দেহ করা হয়। পরে সন্দেহভাজন আসামী মফিজুর রহমানকে গ্রেফতার করা হয়।

তার দেওয়া তথ্য মতে পারভেজ ও আল-আমিন সজিবকে আটক করে। পরে তাদের জিজ্ঞাসাবাদে তারা ছায়া হত্যাকান্ডে জড়িত বলে স্বীকার করে। ছায়া খাতুন হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত ছুরি হত্যাকান্ড ঘটনাস্থলের পার্শ্ববর্তী স্যুয়ারেজ ড্রেন থেকে উদ্ধার করা হয়। উদ্ধারকৃত ছুরি ও আটক কিশোরদের যশোর কোতয়ালী থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

উল্লেখ্য ২৩ এপ্রিল যশোর শহরের মনিহার এলাকার বাবুর খাবারের হোটেলের ৩য় তলা থেকে হোটেল কর্মী ছায়ার মৃত্যুদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here