যশোরে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উল্টে গেলো যাত্রীবাহী বাস, নিহত ১, আহত ৪০

0
42

নিজস্ব প্রতিবেদক: যশোরে একটি যাত্রীবাহী বাসচাপায় ইয়াকুব আলী (৫৫) নামে এক বাইসাইকেল চালক নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছে নিয়ন্ত্রণ হারানো বাসের অন্তত ৪০ জন যাত্রী। আহতদের উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

রবিবার (২ জানুয়ারি) সদর উপজেলার সরুইডাঙ্গা আমতলা এলাকায় যশোর-মাগুরা মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত বাইসাইকেল চালক উপজেলার জোত রহিমপুর গ্রামের হেরমত আলীর ছেলে। আহতদের মধ্যে যাদের পরিচয় মিলেছে তারা হলেন, জেলার বাঘারপাড়া উপজেলার ধর্মগাতী গ্রামের সুধীর কুমারের স্ত্রী সুমনা রানী (৪০), খানপুর গ্রামের বিশ্বজিৎ ঘোষের মেয়ে ফাল্গুনী ঘোষ (২২) ও একই গ্রামের দিনিশ চন্দ্র ঘোষের মেয়ে অনুপমা ঘোষ (২২)।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, ইয়াকুব আলী বাড়ি থেকে বাইসাইকেল চালিয়ে মনোহরপুর বাজারে যাচ্ছিলেন। এ সময় যশোর থেকে ছেড়ে আসা যাত্রীবাহী লোকাল বাস (ঢাকা মেট্রো-জ-১১-১৩৪৪) মাগুরার দিকে যাচ্ছিলো। বিকেল পৌনে তিনটার দিকে ইয়াকুব আলী সংযোগ সড়ক থেকে যশোর-মাগুরা মহাসড়কে উঠলে তাকে বাঁচাতে গিয়ে বাসটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে উল্টে যায়। এ সময় বাসের নিচে চাপা পড়ে ঘটনাস্থলেই বাইসাইকেল চালক মারা যান এবং বাসের অন্তত ৪০ জন যাত্রী আহত হয়। স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে মনোহরপুর বাজারে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়েছে। এর মধ্যে গুরুত্বর আহত যাত্রীদের যশোর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয়েছে।

যশোর ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের সিনিয়র স্টেশন অফিসার আজিজুল হক জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে অভিযান চালিয়ে প্রায় ১ ঘণ্টা পর বাসের নিচ থেকে বাইসাইকেল চালকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

সদরের ইছালী পুলিশ ক্যাম্পের উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোর্কারম হোসেন জানান, দুর্ঘটনার পরপরই বাসের চালক ও হেলপার পালিয়ে গেছেন। তবে ঘাতক বাস ও নিহতের মরদেহ এখন পুলিশ হেফাজতে রয়েছে। এ ঘটনায় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের প্রস্তুতি চলছে।